প্লিজ হরতাল নয়, খালেদাকে শিক্ষার্থীরা

Student

সমাজের কথা ডেস্ক॥ শিক্ষাজীবন নির্বিঘœ করতে এসএসসি পরীক্ষার সময় হরতাল-অবরোধের মতো কর্মসূচি থেকে বিরত থাকার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে অনুরোধ জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।
ঢাকার কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কয়েকশ শিক্ষার্থী বুধবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের কাছে মানববন্ধনে দাঁড়িয়ে তার প্রতি এ আহ্বান জানান। শিক্ষক-অভিভাবকরাও তাদের সঙ্গে ছিলেন।
গুলশান মডেল হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ক্যামব্রিয়ান স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কালাচাঁদপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজসহ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় চার শতাধিক শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবক বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এই মানববন্ধনে অংশ নেন।
হরতাল-অবরোধবিরোধী বিভিন্ন শ্লোগানের পাশাপাশি পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা বন্ধের দাবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ডও ছিল শিক্ষার্থীদের হাতে।
প্রায় এক ঘণ্টা হাতে হাত রেখে শান্তিপূর্ণ শিক্ষার পরিবেশ পেতে বিএনপি নেত্রীর প্রতি কর্মসূচি প্রত্যাহারের আবেদন জানান তারা।
বিএনপি প্রধান খালেদা জিয়ার ডাকে গত ৫ জানুয়ারি থেকে সারা দেশে অবরোধ চলছে। অবরোধের ফাঁকে ফাঁকে হরতালেরও ডাক আসছে বিএনপি-জামায়াত জোটের পক্ষ থেকে।
এসব কর্মসূচিতে প্রায় প্রতিদিনই রাজধানীসহ সারা দেশে গাড়িতে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ, অগ্নিসংযোগ ও হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটছে।
এরইমধ্যে গত সোমবার থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও হরতাল-অবরোধের কারণে প্রথম দুই দিনের পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।
পরিবর্তিত সূচিতে আগামী শুক্রবার প্রথম পরীক্ষায় বসার কথা রয়েছে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের। এবার প্রায় ১৫ লাখ শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেবেন।
বিএনপি নেত্রীর প্রতি কর্মসূচি প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়ে গুলশান মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী রুকসনা আহমেদ বলেন, “আমরা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পরীক্ষা দিতে চাই। হরতালে আমাদের ভয় লাগে, পড়া-লেখার ক্ষতি হচ্ছে। প্লিজ পরীক্ষার সময়ে হরতাল দেবেন না।”
এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ এম মোস্তফা জামান বলেন, এসএসসি পরীক্ষার সময় সূচি দুই দফায় পেছানো হল।
“বার বার সূচি পেছানো হলে শিক্ষার্থীদের মনোবল ভেঙে যায়। তারা মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।”
এদিকে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয় এখনো মোবাইল নেটওয়ার্ক ও কেবল টিভি সংযোগ বিচ্ছিন্ন বলে নেতারা জানিয়েছেন।
গত দুইদিনের মতো এখনো এই কার্যালয়ে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না বলেও বিএনপি নেতাদের অভিযোগ।
গত ৩ জানুয়ারি থেকে এই কার্যালয়ে অবস্থান করছেন খালেদা জিয়া।

শেয়ার