এবার ট্রেনে পেট্রোল বোমা হামলা, দগ্ধ ৪

file636
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বিএনপি-জামায়াত জোটের অবরোধ ও হরতালের মধ্যে গাজীপুরের শ্রীপুরে একটি ট্রেনে ছোড়া পেট্রোল বোমায় ৪ জন দগ্ধ হয়েছেন।
সোমবার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে শ্রীপুর রেলস্টেশনের আউটার সিগন্যাল ও হোম সিগন্যালের মাঝে এ ঘটনা ঘটে বলে শ্রীপুর থানার ওসি মোহসিনুল-কাদির জানান।
তিনি বলেন, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জামালপুর কমিউটার এক্সপ্রেসের একটি বগি লক্ষ্য করে এই পেট্রোল বোমা ছোড়া হয়।

দগ্ধ চারজন হলেন- ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার কাদিরপুর গ্রামের মো. হোসেন (৬০), ভালুকা উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের এমএলএসএস আফাজ উদ্দিন (৫০), গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর শহরের ভাংনাহাটি গ্রামের চাল ব্যবসায়ী কাজিম উদ্দিন (৪৫) ও শান্তিবাগ এলাকার দিনমজুর মফিজ উদ্দিন (৬০)।

এদের মধ্যে হোসেন ও কাজিম উদ্দিন বোমায় দগ্ধ হন। অন্য দুজন আতংকে লাফিয়ে নামার সময় আহত হন।

ট্রেন স্টেশনে পৌঁছালে পুলিশ ও এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে দগ্ধ দুজনকে ঢাকায় পাঠানো হয় বলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. হাসান ইমাম জানান।

স্টেশন মাস্টার শাহজাহান মিয়া বলেন, “ট্রেনটি স্টেশনে ঢোকার মুখে শ্রীপুর ফরেস্ট অফিসের পাশের জঙ্গল থেকে কয়েকজন দুর্বৃত্ত ইঞ্জিন বরাবর দুটি পেট্রোল বোমা ছোড়ে। এতে কয়েকজন যাত্রী দগ্ধ হলেও ট্রেনের কোনও ক্ষতি হয়নি।

স্টেশনে নিয়মিত যাত্রাবিরতি শেষে যাত্রী নিয়ে ট্রেনটি জামালপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় বলে জানান তিনি।

শ্রীপুরের ওসি জানান, এ ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে পেট্রোল বোমার আলামত উদ্ধার করা হয়েছে।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের লাগাতার অবরোধের মধ্যে যাত্রীবাহী বাসে আগুন দেওয়ার পাশাপাশি প্রায়ই রেল অবকাঠামো লক্ষ্য করে নাশকতা চালানো হচ্ছে।

রোববার ভোরে চট্টগ্রামের মিরসরাই বড় তাকিয়া এলাকায় অবরোধকারীরা রেল লাইনের প্রায় ১২৬ ফুট দীর্ঘ অংশ থেকে ১২০টি প্যান্ডেল ক্লিপ খুলে ফেলায় ময়মনসিংহ এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত হয়। ওই ঘটনায় আহত হন ট্রেনের চালকসহ পাঁচজন।

১১ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর লাইন মেরামত করে সোমবার বিকালে চট্টগ্রামের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ আবার চালু করা হয়।

এই নাশকতাকারীদের ধরিয়ে দেওয়ার জন্য রেলওয়ের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে।

শেয়ার