সময় নিয়ে ‘ভুল’ শুধরান: খালেদাকে প্রধানমন্ত্রী

fil365e

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার ‘ভুল’ স্বীকার করে এখন আন্দোলন না চালিয়ে তা শুধরাতে সময় নিতে খালেদা জিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শেখ হাসিনা।
রোববার একুশের বইমেলার উদ্বোধন করতে গিয়ে অবরোধ-হরতালে নাশকতার ঘটনাগুলো তুলে ধরে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রতি এই আহ্বান জানান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী।
৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর এক বছর স্থিতিশীল পরিস্থিতির কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “কেন এমন অবস্থা হল এখনও আমার বোধগম্য নয়।
“কেউ যদি তার রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করেন, তার দায় জনগণের ওপরে কেন চাপাতে হবে। রাজনীতি করতে গিয়ে কেউ যদি রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে ভুল করেন, সে ভুলের খেসারত তাকে দিতে হবে, সে ভুল শুধরানোর সময়ও তাকে নিতে হবে।”
৫ জানুয়ারির নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা ২০১৯ সালের আগে সংসদ নির্বাচনের সম্ভাবনা নাকচ করে আসছেন।
অন্যদিকে ওই নির্বাচন বয়কটকারী বিএনপি জোট নির্দলীয় সরকারের অধীনে মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবিতে গত ৫ জানুয়ারি থেকে অবরোধ-হরতাল চালিয়ে যাচ্ছে, যাতে নাশকতায় ইতোমধ্যে অন্তত ৪০ জন মারা গেছেন।
শেখ হাসিনা বলেন, “সাধারণ নিরীহ মানুষ কী অপরাধ করেছে যে পুড়িয়ে মারতে হবে? মানুষ পুড়িয়ে মারা কোনো আন্দোলন হতে পারে না। এটা জঙ্গিবাদী কর্মকান্ড, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড। বাংলাদেশ থেকে চিরদিনের জন্য সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও জঙ্গিবাদ দূর হোক, তা আমরা চাই।”
নাশকতা ঠেকাতে সরকার সক্রিয় রয়েছে জানিয়ে বিরোধী জোটকেও এই ধরনের কর্মকান্ড না চালানোর আহ্বান জানান তিনি।

“আর যেন বোমা হামলা, মানুষ পোড়ানো কর্মকান্ড না হয়, তা থেকে বিরত থাকার জন্য বিএনপি-জামাত জোটকে আহ্বান জানাচ্ছি।”

“হয় এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকতে হবে। নইলে এদেশের মানুষের রুদ্ররোষে তাদের একদিন পুড়তে হবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই “ হুঁশিয়ারিও দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “৫ জানুয়ারির ভোটের আগেও ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করা হয়েছিল। সুষ্ঠু নির্বাচনের পর সে অবস্থাটা কাটিয়ে উঠেছিলাম। একটি বছর মানুষ শান্তিতে ছিল।”

হরতাল-অবরোধের মধ্যে পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে সরকার প্রধান বলেন, “আমরা সোমবারের পরীক্ষা পিছিয়ে শুক্রবারে নিয়েছি, কারণ আমরা কোনো ঝুঁকি নিতে চাই না।

“যারা সহিংসতা করছে তারা মানুষ না, তারা শিশুদেরও পরোয়া করে না। তাদের কোনো হিতাহিত জ্ঞান নেই। তারা শিশুদের জীবনের পরোয়া করে না। তা না হলে দুই বছরের শিশুও তাদের বোমার হাত থেকে রেহাই পায়নি।”

তবে এসব মোকাবেলা করেই বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয় জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, “সন্ত্রাসীদের কাছে কখনও এ জাতি পরাভব মানবে না।”

শেয়ার