যশোরে রানার সম্পাদকের শোকসভায় বক্তারা ॥ অর্থ ও হুমকির কাছে টুটুল মাথা নত করেননি

sho
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরের দৈনিক রানার সম্পাদক আরএম মঞ্জুরুল আলম টুটুল’র শোকসভায় বক্তারা বলেছেন, অর্থ ও হুমকির কাছে টুটুল কোনদিন মাথা নত করেননি। তিনি তার পিতা মরহুম সাংবাদিক গোলাম মাজেদ ও বড়ভাই শহীদ সাংবাদিক সাইফুল আলমের পদাঙ্ক অনুসরণ করে নিষ্ঠা ও সততার পরিচয় দিয়েছেন।
শনিবার দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে এক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তারা বলেন, টুটুল একদিকে সাংবাদিক ছিলেন, অন্যদিকে ছিলেন সাংস্কৃতিক কর্মী। একারণে তিনি মানুষের সাথে প্রাণখুলে কথা বলতেন। সকলকে সম্মান দিতেন। তার এ আদর্শ দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।
সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম সজল ও জাহিদ আহম্মেদ লিটনের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রবীণ সাংবাদিক জমির আহম্মদ টুন, যশোর সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি একরাম উদ-দ্দৌল্লা, ইনকিলাবের বিশেষ প্রতিনিধি মিজানুর রহমান তোতা, প্রভাতফেরীর সম্পাদক ফকির শওকত, সাপ্তাহিক সোনালী দিন পত্রিকার প্রকাশক বোরহান উদ্দিন জাকির, প্রেসক্লাব যশোরের সাবেক সম্পাদক আহসান কবীর, কবি ও সাংবাদিক ফখরে আলম, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি সাজ্জাদ গণি খান রিমন, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি নূর ইসলাম, সাবেক সভাপতি মহিদুল ইসলাম মন্টু, দেশটিভির যশোর প্রতিনিধি আমিনুর রহমান মামুন, বাংলা ট্রিবিউনের যশোর প্রতিনিধি তৌহিদ জামান, সময়ের খবরের যশোর প্রতিনিধি সরোয়ার হোসেন ও লোকসমাজের স্টাফ রিপোর্টার বিএমআসাদ।
উল্লেখ্য, বুধবার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হলে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে আনার পথে মারা যান সাংবাদিক টুটুল। তার মৃত্যুতে চার দিনের শোক কর্মসূচি গ্রহণ করে প্রেসক্লাব যশোর। গতকাল শোকসভা ও দোয়া মাহফিলের মধ্যে এ কর্মসূচি শেষ হয়।

শেয়ার