বসে থাকলে বাড়ে মৃত্যু ঝুঁকি

Sitting
সমাজের কথা ডেস্ক॥ আধুনিক বিশ্বে দিনের বেশির ভাগ সময় আমাদের বসেই কাটাতে হয়। গাড়ি চালানো থেকে শুরু করে অফিসের কাজ, ঘরে ফিরে টিভি দেখা, বেশির ভাগ কাজই আমরা বসে করি। কিন্তু সাম্প্রতিক এক গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতিদিন এভাবে বসে থাকলে আশঙ্কা বাড়ে অকালমৃত্যুর জন্য দায়ী এমন দূরারোগ্য রোগে আক্রান্ত হওয়ার।

সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, দৈনন্দিন জীবনের সিংহভাগ সময় চেয়ারে বসে কাটানোর অভ্যাস নিয়ে বিভিন্ন সময়ের ৪৭টি গবেষণা প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে দূরারোগ্য রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কার ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছেন টরন্টোর এক দল বিজ্ঞানী।

গবেষণা শেষে সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানীদের মত, দৈনন্দিন জীবনের সিংহভাগ সময় বসে থাকার ফলে যে ক্ষতি হয়, তা ব্যায়াম থেকে পাওয়া উপকারের চেয়েও অনেক বেশি।

বসে থাকার নেতিবাচক প্রভাব থেকে শরীর বাঁচাতে চাইলে বাড়াতে হবে ব্যায়ামের পরিমাণ।

গবেষকদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বসে থাকার কারণে একজন মানুষের শরীরে হৃদরোগ, টাইপ ২ ডায়াবেটিস বা ক্যান্সারের মতো রোগের আশঙ্কা বাড়ে। বিশ্বব্যাপী মানুষের মৃত্যুর সবচেয়ে বড় কারণগুলোর মধ্যে শারীরিক নিষ্ক্রিয়তাকে চতুর্থ স্থানে রেখেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

প্রতিদিন ৮-১২ ঘন্টা বসে থাকার ফলে টাইপ ২ ডায়াবেটিস হওয়ার আশঙ্কা ৯০ শতাংশ বাড়ে। এ কারণে কাজের ক্ষেত্রে বসে থাকার সময় যাতে অনেক বেশি না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা।

শেয়ার