আরএন রোড ক্রীড়াচক্রের বিশাল জয়

cricketbol
আরমান সজল॥
টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন আরএন রোড ক্রীড়াচক্রের অধিনায়ক সঞ্জয় বিশ্বাস। তার সিদ্ধান্তের যতার্থতা প্রমাণ করে ওপেনিং ব্যাটসম্যান আহাদ ও কামরুজ্জামান অবিচ্ছন্ন থেকে প্রথম ৫ ওভারে তোলেন ৪১ রান। ১৫ ওভারে তারা অবিচ্ছন্ন থেকে তোলেন ১১১ রান। ১৯ ওভার ৪ বলে দলীয় ১৩৫ রানের মাথায় প্রতিপক্ষ দলের সোহাগের স্পিনের জালে ধরা দেন আহাদ। তিনি ৬৮ বলে ৭৪ রান করেন। এরপর মাহিডল আলম শুভ ওয়ান ডাউনে নেমে কামরুজ্জামানের সঙ্গে জুটি গড়েন। কিন্তু তারা ২৭ রানের জুটি করার পর ২৩ ওভার ২ বলে দলীয় ১৬২ রানে সোহাগের স্পিনে দ্বিতীয় বার জালে ধরা দেয় নিজস্ব ৬৭ রানে কামরুজ্জামান। শুভর সাথে জুটি গড়েন মুরাদ। আহাদ ও কামরুজ্জামান আউট হলেও চার আর ছক্কার কোন কমতি ছিল না শুভ ও মুরাদের ব্যাট থেকে। ৪৩ ওভারে তারা অবিচ্ছন্ন থেকেই ৩২৮ রানের বড় স্কোর করেন। আর ৪৩ ওভার তিন বলে ফাস্ট বলার শফিয়ারের প্রথম শিকার হন মুরাদ। তার আগে তিনি ৬৯ রান করেন। এরপর নামেন রানা বিশ্বাস। তার সাথে ৫ রানের জুটি গড়ে লিগে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি করেন মাহিউল আলম শুভ। তার ১০১ রানের উপর ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ৩৭৬ রানের বিশাল স্কোর গড়ে আরএন রোড ক্রীড়াচক্র। এঠাই চলতি লিগে দলীয সর্বোচ্চ স্কোর। ৩৭৬ রানের পাহাড় সমান টার্গেটে খেলতে নেমে নির্ধারিত ওভার শেষে সব উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৭৩ রানের ইনিংস গড়ে পাইওনিয়র স্পোর্টিং ক্লাব। দলের হয়ে অপরাজিত নয়ন ৫৩, মোহন ২০ ও সোহাগ ১৩ রান করেন। আরএন রোড ক্রীড়াচক্রের তন্ময় ৪টি শামীম ২টি এবং মুরাদ, শুভ, সঞ্জয় ও সোহেল ১টি করে উইকেট নেন। খেলাটি গতকাল শামস-উল-হুদা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। আজ একই ভেন্যুতে মাঠে নামবে দি নিউ স্টার ক্লাব ও মুন্সি এরশাদ আলী স্মৃতি সংঘ।

শেয়ার