যশোরে আরও ২টি বাসে অগ্নিসংযোগ বিএনপি ক্যাডারদের ॥ বাসে ঘুমানোই কাল হলো ট্রাক চালক মুরাদের

bus a
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে অবরোধকারী বিএনপি সমর্থকরা আরও ২টি বাসে আগুন দিয়েছে। এর মধ্যে পার্কিং করা বাসে ঘুমন্ত ট্রাক চালক মুরাদ হোসেন (২৫) অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। বুধবার ভোরে উপশহর এলাকায় দুইটি বাসে অবরোধ সমর্থকরা আগুন দিলে এ ঘটনা ঘটে। এর একটি বাসের মধ্যে ঘুমিয়ে থাকা ট্রাক চালক মাগুরা জেলার মহম্মদপুর উপজেলার কানুটিয়া গ্রামের তোরাব মোল্লার ছেলে মুরাদ হোসেন মারাত্মকভাবে অগ্নিদগ্ধ হন। গুরুতর অবস্থায় তাকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে দুপুরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার রাতে বারান্দিপাড়া ঢাকা রোড এলাকায় একটি বাসে আগুন দেয়া হয়। পুলিশ বাসে আগুন দেয়ার ঘটনায় ৮জনকে আটক করেছে।
পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, বুধবার ভোর ৪টার দিকে যশোর উপশহর এলাকার খাজুরা বাসস্ট্যান্ডে আড়াইশ গজের ব্যবধানে দাড়িয়ে থাকা দুইটি বাসে আগুন দেয় অবরোধ সমর্থক বিএনপি কর্মীরা। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা একটি বাসের আগুন দ্রুত নিভিয়ে ফেললেও অপর বাসটি পুরোপুরি ভ¯ী§ভূত হয়। ওই বাসটির ভেতরে থাকা ট্রাক চালক মুরাদ মারাত্মকভাবে অগ্নিদগ্ধ হয়। তাকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মুরাদের শরীরের ৪০-৪৫ ভাগই পুড়ে গেছে।
অগ্নিদগ্ধ মুরাদ হোসেন জানান, ওই বাসের হেলপার ইয়াসিন আর আমি কম্বল গায়ে বাসের মধ্যে ঘুমিয়ে ছিলাম। ভোর বেলার দিকে আগুনে তাপে ঘুম ভেঙে যায়। হুড়মুড় করে ঘুম থেকে উঠে দেখি ইয়াসিন সামনের দিকে দৌঁড়ে চলে গেছে। কখন কম্বলে আগুন ধরে গিয়েছে তা বুঝতে পারিনি। আমি পিছনের দিকে গিয়ে বের হতে পারিনি। এরপর কি হয়েছে জানি না।
অগ্নিদগ্ধ মুরাদের ভাই আব্দুস সামাদ জানিয়েছেন, মুরাদ যে ট্রাকের চালক সেটির মেরামত চলছে গ্যারেজে। সেই গ্যারেজের পাশে ওই বাসটি রাখা ছিল। বাসের হেলপার ও চালক মুরাদের পরিচিত। তাই তারা এক সঙ্গে বাসের মধ্যে ঘুমিয়ে ছিলো। ভোরে কারা বাসে আগুন দিয়েছে জানা যায়নি।
এর আগে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে যশোর শহরের বারান্দিপাড়া ঢাকারোড ব্রিজের কাছে একটি বাসে আগুন দেয় অবরোধ সমর্থকরা। আগুনে ওই বাসটিও পুরোপুরি ভস্মীভূত হয়। তবে হতাহতের কোন ঘটনা ঘটেনি।
যশোর পুলিশের মুখপাত্র ও সহকারী পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন, উপশহরে বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দগ্ধ মুরাদকে ঢাকা পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত ৮জনকে আটক করা হয়েছে।

শেয়ার