মেয়াদোত্তীর্ণ জুস নিয়ে বিতর্ক ॥ লোহাগড়ায় ঢাকা সিএমএম কোর্টের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট লাঞ্ছিত

lancito
লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি॥ ঢাকা সিএমএম কোর্টের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশিকুর রহমান ও তার বন্ধু ফারুক হোসেনকে লাঞ্চিত করার ঘটনা নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। জুস কেনাকে কেন্দ্র করে মুদি দোকানী ও তার দু’ছেলে এই ম্যাজিস্ট্রেটকে লাঞ্চিত করার খবরে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায় কিন্তু তার আগেই সটকে পড়ে দোকানীসহ তার দুই ছেলে শনিবার ইফতারের পূর্বে নড়াইলের লোহাগড়ার সিএন্ডবি চৌরাস্তা(কুন্দসী) মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, শনিবার ঢাকা সিএমএম কোর্টের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট লোহাগড়ার মঙ্গলহাটা গ্রামের সন্তান আশিকুর রহমান ও লোহাগড়ার চর মঙ্গলহাটা গ্রামের ফারুক হোসেন পার্শ্ববর্তী মল্লিকপুর গ্রামে এক আতœীয়ের বাসায় ইফতারের দাওয়াতে অংশ নিতে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে তারা সিএন্ডবি চৌরাস্তা মোড়ের একটি দোকানে ফলের জুস কিনতে যান। এ সময় দোকানদার মহসিন শিকদার মেয়াদ উত্তীর্ন একটি জুসের ক্যান দিলে তিনি নিতে অস্বীকার করেন এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ জুস বিক্রি চরম অপরাধ জানালে ক্ষেপে ওঠে দোকানী মহসিন শিকদার ও তার দু ছেলে কামরুল ও ইমরান শিকদার। এক পর্যায়ে তাদের ওপর চড়াও হয় ও লাঞ্চিত করে। এ খবর পেয়ে লোহাগড়া থানার এসআই নয়ন পাটোয়ারির নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনার পরপরই স্থানীয় জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে দোকান বন্ধ করে পালিয়ে যায়। ঢাকা সিএমএম কোর্টের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশিকুর রহমানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি। তবে এসআই নয়ন পাটোয়ারি ঘটনাস্থল পরিদর্শনের কথা স্বীকার করে জানান, বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

শেয়ার