মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হতে দুই ঘণ্টা!

mreito
সমাজের কথা ডেস্ক॥ যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনায় মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আসামী যোসেফ উডের মৃত্যুদ- কার্যকর হতে দুই ঘন্টা সময় লেগেছে।
প্রাণঘাতী ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করার পর আরও প্রায় দুই ঘন্টা বেঁচে ছিলেন তিনি। সাধারণত এ ধরনের ইঞ্জেকশন প্রয়োগের ১০ মিনিটের মধ্যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি মৃত্যুবরণ করেন।

অ্যারিজোনা অ্যাটর্নি জেনারেলের দপ্তরের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, বুধবার দুপুর ১টা ৫২ মিনিটে উডের শরীরে প্রাণঘাতী ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করার ১ ঘন্টা ৫৭ মিনিট পর বিকেল ৩টা ৪৯ মিনিটে তিনি মারা যান। জোড়া খুনের দায়ে অভিযুক্ত হয়ে মৃত্যুদ- পেয়েছিলেন ৫৫ বছর বয়সী উড।
প্রণঘাতী ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করার পর মৃত্যুদ-ের মঞ্চে, “এক ঘন্টারও বেশি সময় ধরে শ্বাসকষ্ট ও নাক দিয়ে ঘরঘর” শব্দ করার পর মৃত্যুদ- স্থগিত করার জরুরি আবেদন জানিয়েছিলেন উডের আইনজীবী।
এ ঘটনার পর অ্যারিজোনার গভর্নর জান ব্রিউয়ার মৃত্যুদ- কার্যকর করার সময় ঘটা ঘটনার পূর্ণ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। তবে “আইন মেনেই উডের মৃত্যুদ- কার্যকর” করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি।
অপরদিকে উডের আইনজীবীর দাবি, এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মৃত্যুদ- কার্যকরের সময় নিষ্ঠুর ও অপ্রচলিত শাস্তি প্রয়োগ করে মৃত্যুদ- কার্যকর না করার আইন লঙ্ঘণ করে তার মক্কেলের অধিকার ক্ষুণ্ন করা হয়েছে। এ বিষয়ে গভর্নর ব্রিউয়ার বলেছেন, “প্রত্যক্ষদর্শী ও চিকিৎসকের সাক্ষ্য অনুযায়ী তার কোনো কষ্ট হয়নি।”
১৯৮৯ সালে সাবেক প্রেমিকা ডেব্রা ডায়াজ ও তার পিতা ইউজিন ডায়াজকে খুনের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন উড।

শেয়ার