সিগারেট বিস্ফোরণে বাড়ি বিধ্বস্ত

cigaret
সমাজের কথা ডেস্ক॥ সিগারেট বিস্ফোরণে যুক্তরাজ্যের হ্যাম্পশায়ার শহরের একটি বাড়ি বিধ্বস্ত হয়ে গেছে। অবাক করা বিষয় হলেও সত্যি যে একটি ইলেকট্রনিক সিগারেট থেকে ঘটে যাওয়া বিস্ফোরণে পুরো বাড়িতে আগুন ধরে যায়। বাড়ির বাসিন্দা নিজের ইলেকট্রনিক সিগারেটটি ভুল করে ভিন্ন চার্জারের সঙ্গে সংযোগ দেয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এই বিস্ফোরণ ঘটে।

হ্যাম্পশায়ারের রিংউড নামের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। প্রাথমিক তদন্তকারীদের দাবি, ভুল চার্জারে ই-সিগারেট লাগানোর কারণে সিগারেটটি বিস্ফোরিত হয় এবং পুরো বাড়ির বৈদ্যুতিক লাইনে আগুন ধরে যায়।

অগ্নি নির্বাপক দলের ম্যানেজার ড্যান তাস্কার জানান, ‘আমাদের প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে, বাড়ির মালিক নারীর সন্তান সিগারেটটির চার্জার হারিয়ে ফেলে। কিন্তু চার্জার হারিয়ে যাওয়ার পরেও যখন অন্য চার্জারে সিগারেটটি চার্জ দেয়ার জন্য দেয়া হয়, তখনই বিস্ফোরণ ঘটে। সেসময় ওই নারী বাড়ির উপরের তলায় ছিল। আর আগুনের কাছাকাছি কেরোসিনের ক্যানিস্টার থাকার কারণে বড় বিস্ফারণ হয়।’

গত মে মাসে, যুক্তরাজ্যের ওয়েলসের এক নারী ই-সিগারেট বিস্ফোরণের কারণে শরীর পুড়ে গিয়েছিল। সেখানেও ভুল চার্জারে সিগারেট চার্জ দেয়ার কারণেই বিস্ফোরণ ঘটেছিল। এমনিতেও বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকেই ই-সিগারেট অতিরিক্ত গরম হয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছিল।

এবিষয়ে হ্যাম্পশায়ার কাউন্টি কাউন্সিল ট্রেডিং স্ট্যান্ডার্ডসের একজন মুখপাত্র জানান, ‘মূল ঘটনাটা আসলে কম দামি চার্জারের নয়। মোবাইল ফোন, ই-সিগারেটসহ বিভিন্ন চার্জ নির্ভর ডিভাইসের ক্ষেত্রে প্রায়শই এরকম হচ্ছে। এরকম ঘটনায় শুধু যে আমাদের ডিভাইসটিই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে তা নয়, বাড়ি ঘরে পর্যন্ত আগুন লেগে যাচ্ছে। আমাদের সংস্থার সদস্যরা প্রতিনিয়ত এরকম চার্জার নষ্ট করে ফেলছে। কিন্তু প্রতিটি বাড়ি বাড়ি গিয়ে চার্জার নষ্ট করার বিষয়টি আইনসিদ্ধ নয়। ডিভাইস উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকেই এক্ষেত্রে এগিয়ে আসতে হবে।’

শেয়ার