জলবায়ু ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ ভূমিকা চান ব্রিটিশ মন্ত্রী

pm
সমাজের কথা ডেস্ক॥
২০১৫ সালে প্যারিসে অনুষ্ঠেয় জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ভূমিকা প্রত্যাশা করেছেন ব্রিটেনের ছায়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডগলাস আলেক্সজান্ডার।
মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে চারটায় হোটেল হিল্টন অন পার্কলেইনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করতে এসে তিনি প্রত্যাশার কথা জানান।
বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক ও প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব একেএম শামীম চৌধুরী।
তারা জানান, ডগলাস আলেক্সজান্ডার এর আগে কোপেনহেগেনে অনুষ্ঠিত জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলনে শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ভূমিকার কথা স্মরণ করে জানতে চান আগামী বছর প্যারিসের সম্মেলনেও তিনি একই ভূমিকা রাখবেন কি না।
উত্তরে প্রধানমন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যুতে বাংলাদেশের অঙ্গীকারের কথা উল্লেখ করেন এবং এক্ষেত্রে উন্নত বিশ্বের প্রতিশ্রুত সহযোগিতা পুরোপুরি না পাওয়ায় হতাশা ব্যক্ত করেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, উন্নত বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তন ইস্যুতে তাদের প্রতিশ্রুত সহযোগিতা পুরোপুরি দিতে না পারলেও বাংলাদেশ নিজস্ব অ্যাকশন প্ল্যান নিয়ে কাজ করছে।
আগামী সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন যে জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলন ডেকেছেন তাতে অংশ নেওয়ার কথা জানান প্রধানমন্ত্রী।
বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী ব্রিটিশ শ্যাডো ফরেন সেক্রেটারিকে জানান নির্বাচনের আগে বিএনপি-জামায়াতের সহিংস কর্মকা-ের কারণে রাজনীতিতে যে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি হয়েছিল, তা এখন আর নেই।
বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা পুরোপুরি শান্ত ও স্থিতিশীল আছে মন্তব্য করে শেখ হাসিনা ডগলাস আলেক্সজান্ডারকে জানান বাংলাদেশের মানুষ এখন শুধু নিরাপদই নয়, আর্থিকভাবেও ভালো আছে।
এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বর্তমান সরকারের আমলে অথনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধরে রাখাসহ সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের বর্নণা দেন ব্রিটিশ ছায়া মন্ত্রীকে।
ব্রিটিশ মন্ত্রীও বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রশংসা করেন।
ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বিরোধী দলীয় নেতা এড মিলিব্যান্ড লন্ডনে না থাকায় বিরোধী দলের নেতার পক্ষে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করতে আসেন ছায়ামন্ত্রী ডগলাস আলেক্সজান্ডার।

শেয়ার