রিয়াদ খুনের ঘটনায় ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ॥ গতকালও বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ ও মানববন্ধন॥ নিন্দা বিবৃতি

ovhoi
সমাজের কথা ডেস্ক॥ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নাইমুল ইসলাম রিয়াদ হত্যার ঘটনায় যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুলসহ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দের নামে মামলার প্রতিবাদে গতকালও বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কোন কোন স্থানে বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ মামলা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দিয়েছে। পত্রিকা দপ্তরে বিবৃতি পাঠিয়ে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মামলা প্রত্যাহার করে নিতে প্রশাসনের প্রতি আহবান জানিয়েছেন আ’লীগ ও ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :
মণিরামপুর থেকে আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুলসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীর নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দিয়েছে মণিরামপুর উপজেলা ছাত্রলীগ। শুক্রবার বিকেলে পৌরশহরে প্রতিবাদ মিছিল, বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করে করে ছাত্রলীগ। এসময় বিক্ষোভ মিছিলটি বের হয়ে পৌর শহরের গুরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা আ’লীগের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশ করে। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগ নেতা ফরহাদ হোসেন, আবু তালহা তালেব, বিল্লাল হোসেন, হুমায়ুন কবির, আতিক, আবু সালেহ, দ্বিপ প্রমুখ।
বাঘারপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি জানান, জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে গতকাল বাঘারপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগ মানববন্ধন করে। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক বায়জিত হোসেন, সোয়াইব আহম্মেদ, বিএম শাহ্জালাল, আওআল সরদার, টিপু সুলতান, জুয়েল রানা সহ উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।
বাগআঁচড়া (যশোর) থেকে এম. সাঈদ জানান, মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে শুক্রবার বিকালে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যোগে এক বিক্ষোভ মিছিল বাগআঁচড়া বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক গুলো প্রদক্ষিণ শেষে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী আহম্মেদ শান্তির পরিচালনায় ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শফিক মাহমুদের সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মন্ডল, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন, যুবলীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান হাই, আওয়ামীলীগ নেতা শরিফুল ইসলাম শরিফ, গাজী মুছা, শেখ নাজমুল হাসান, কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাজ্জাত হোসেন সোহাগ, ছাত্রলীগ নেতা আহসান হাবিব আরিফ, ইমাম হোসেন শিশির, রবি ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান।
এদিকে এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে মিথ্যা মামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তা প্রত্যাহারের দাবি করেছেন যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদ, সহ-সভাপতি রবিউল ইসলাম, হামিদুর রহমান লাবলু, মনোয়ার হোসেন ইমন, মাহবুব মিলন, যুগ্ম সম্পাদক তরিকুল ইসলাম জনি, সজীব কুশারী, জসিম উদ্দীন সাংগঠনিক সম্পাদক, মাসুদ রানা মিলন, সাঈদ সর্দার, রিয়াদ হাসান প্রচার প্রচার সম্পাদক আশরাফুল আলম উপ-দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বনি, স্কুল সম্পাদক ফরিদ সর্দার, সদস্য স্বরূপ, সজল, মিন্টু প্রমুখ।
শহর আওয়ামী লীগ যশোর শাখার পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে এবং একই সাথে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে যারা বিবৃতি দিয়েছেন তারা হলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শহর শাখার সহ-সভাপতিদ্বয় রফিকুল ইসলাম, অ্যাড. সোহেল শামীম, বদরুল আলম দুলাল, বাকার দুলাল, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসিন সিদ্দিকী, যুগ্ম সম্পাদক ইমাম হাসান লাল, সাংগঠনিক সম্পাদকদ্বয় হাবিবুর রহমান চাকলাদার, মাহমুদ খোকন, মুক্তিযোদ্ধা সম্পাদক বজলুর রহমান মানিক, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মুজিবর রহমান, শ্রম সম্পাদক আব্দুল হান্নান, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হুমায়ুন কবীর, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শেখ ইলিয়াস আলী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ফয়জুল কবীর কচি, সদস্যগণ কাজী আনসার আলী, সাইফুল ইসলাম বাবু, সাদেক আলী, আলমগীর হোসেন, পরান, রফিক, মঙ্গল দাসসহ শহর আওয়ামী লীগ ও সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।
অনুরূপ বিবৃতি দিয়েছেন জেলা শ্রমিকলীগের নেতৃবৃন্দ। রিয়াদ হত্যার সাথে জড়িতদের তদন্ত সাপেক্ষে অবিলম্বে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি ও মামলা প্রত্যাহার দাবি করে যারা বিবৃতি দিয়েছেন তারা হলেন সভাপতি কাজী আব্দুস সবুর, সহ-সভাপতি জয়নাল আবেদিন, মোস্তাফিজুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন, আইন বিষয়ক সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন মনি, প্রচার সম্পাদক শরীফ আব্দুল্লাহ হেল সুজিত, অর্থ সাধারণ সম্পাদক মহসীন কবীর, শ্রম সাধারণ সম্পাদক নূর মোহাম্মদ কুটি, ক্রীড়া সম্পাদক এসএম সাঈদ সিদ্দিকী প্রমুখ। শহর আওয়ামী লীগ যশোর শাখার পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং সাথে সাথে এই মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শহর শাখার সহ-সভাপতিদ্বয় যথাক্রমে, রফিকুল ইসলাম, অ্যাড. সোহেল শামীম, বদরুল আলম দুলাল, বাকার দুলাল, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসিন সিদ্দিকী, যুগ্ম সম্পাদক ইমাম হাসান লাল, সাংগঠনিক সম্পাদকদ্বয় হাবিবুর রহমান চাকলাদার, মাহমুদ খোকন, মুক্তিযোদ্ধা সম্পাদক বজলুর রহমান মানিক, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মুজিবর রহমান, শ্রম সম্পাদক আব্দুল হান্নান, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হুমায়ুন কবীর, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শেখ ইলিয়াস আলী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ফয়জুল কবীর কচি, সদস্যগণ কাজী আনসার আলী, সাইফুল ইসলাম বাবু, সাদেক আলী, আলমগীর হোসেন, পরান, রফিক, মঙ্গল দাসসহ শহর আওয়ামী লীগ ও সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। এদিকে শিক্ষাঙ্গণে সন্ত্রাস, দখলদারিত্ব এবং প্রতিহিংসামূলক ছাত্র রাজনীতি বন্ধের দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের আয়োজনে যশোর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন যবিপ্রবি’র এর শিক্ষার্থী রুহুল আমিন বিন্তু, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সংগঠক ইমরান খান, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের হাবিবুল করীম শাওন ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট যশোর জেলা শাখার নেতা কৃষ্ণেন্দু মন্ডল প্রমুখ।

শেয়ার