সমুদ্রসীমার রায় মেনে নিয়েছে ভারত

Maritime India Reaction
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বঙ্গোপসাগরে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বিরোধপূর্ণ সাড়ে ২৫ হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকার নতুন সমুদ্রসীমা নির্ধারণ করে আন্তর্জাতিক সালিশি আদালতের দেয়া রায় মেনে নিয়েছে ভারত।
বঙ্গোপসাগরের সীমা, অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং মহীসোপানের তলদেশে সার্বভৌম অধিকার নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের দাবির শুনানি শেষে নেদারল্যান্ডসের স্থায়ী সালিশি আদালত বা পার্মানেন্ট কোর্ট অব আর্বিট্রেশন (পিসিএ) সোমবার রায়ের অনুলিপি দুই দেশের রাষ্ট্রদূতের কাছে হস্তান্তর করে।
বিরোধপূর্ণ ওই এলাকার মধ্যে প্রায় সাড়ে ১৯ হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকা বাংলাদেশকে দিয়ে সীমা নির্ধারণ করে আদালত, যার বিস্তারিত মঙ্গলবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করে বাংলাদেশ সরকার।
বিকালে ভারত সরকারের পরররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে এবিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাইব্যুনালের এই রায়ের প্রতি ভারত সরকারের শ্রদ্ধা জানানোর কথা বলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সৈয়দ আকবরউদ্দিন।
তিনি বলেন, “আমরা ট্রাইব্যুনালের রায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই এবং আমরা ওই রায় ও তার পূর্ণ বাস্তবায়ন নিয়ে পর্যালোচনা শুরু করেছি।
“আমরা বিশ্বাস করি, দীর্ঘদিনের ঝুলে থাকা বিষয়ে সমাপ্তি টেনে সমুদ্রসীমা নিয়ে ঘোষিত এই মীমাংসা ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে পারস্পরিক সমঝোতা ও সৌহার্দ্য আরো জোরদার করবে। এর ফলে বঙ্গোপসাগরের এই অংশে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পথ প্রসারিত হবে, যাতে উভয় দেশই উপকৃত হবে।”

শেয়ার