বাঘারপাড়া থানার ওসির স্ত্রীর কাছ থেকে ভারতীয় শাড়ি জব্দ

varotio shadri
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ভারত থেকে দেশে আসার সময় বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে যশোরের বাঘারপাড়া থানার ওসির স্ত্রীর কাছ থেকে ৪৬ পিস শাড়ি উদ্ধার করেছে কাস্টম কর্তৃপক্ষ। গতকাল শনিবার দুপুরে এ শাড়ি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় চেকপোস্ট এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস তল্লাশি কেন্দ্রের রাজস্ব অফিসার হাসানুজ্জামান জানান, যশোরের বাঘারপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাউয়ুম আলী সর্দারের স্ত্রী ওয়াছিয়া পারভীন শুক্রবার (পাসপোর্ট নম্বর-এএ-৭৩৯২৯৯১) বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে যান। একদিন পর শনিবার দুপুরে ভারত থেকে আসার সময় শাড়িভর্তি একটি বড় ব্যাগ দালালের মাধ্যমে পার করছিলেন তিনি। এ সময় বেনাপোল কাস্টম হাউজের সহকারী কমিশনার শরফুদ্দিন আহমেদ ব্যাগটি জব্দ করেন। পরে ব্যাগ তল্লাশি করে খুবই উন্নত মানের ৫৪টি দামী ভারতীয় শাড়ি পান। এর মধ্য থেকে ওসি পতœী ওয়াছিয়া পারভীনকে ৮টি ব্যবহারের শাড়ি ফেরত দিয়ে ৪৬টি শাড়ি জব্দ করা হয়। রাজস্ব অফিসার হাসানুজ্জামান আরও জানান, শাড়িগুলো বেনাপোল কাস্টমস হাউজের গুদামে জমা দেওয়া হয়েছে। তবে যাত্রী চাইলে সরকারি শুল্ক পরিশোধ করে শাড়িগুলো নিতে পারবেন। এদিকে, বেনাপোল থানার সাবেক ওসি ও বর্তমানে বাঘারপাড়া থানার ওসি কাউয়ুম আলী সরদারের স্ত্রীর ব্যাগ থেকে শাড়ি জব্দের ঘটনায় চেকপোস্ট এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। চেকপোস্ট পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওসি কাউয়ুম আলী সর্দার ২০১৩ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে ওসি হিসেবে যোগদান করেন। একই বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর বেনাপোল পোর্ট থানায় যোগদান করেন তিনি। যোগদানের পর তিনি বিভিন্ন দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন। পরে ২০১৪ সালের ২ জানুয়ারি প্রায় দেড় কোটি টাকার সোনা আত্মসাতের অভিযোগে চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি তাকে যশোর পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়। এ ঘটনায় বিভাগীয় মামলাও করা হয় তার বিরুদ্ধে। বর্তমানে তিনি যশোরের বাঘারপাড়া থানার ওসি হিসেবে কর্মরত।

শেয়ার