গুগলের স্বাস্থ্যবিষয়ক প্ল্যাটফর্ম ‘গুগল ফিট’

Google Health Tracking
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ওয়েব জায়ান্ট অ্যাপল এবং ইলেক্ট্রনিক্স জায়ান্ট স্যামসাংয়ের পর এবার নিজেদের স্বাস্থ্যবিষয়ক সেবা নিয়ে এসেছে ওয়েব জায়ান্ট গুগল।

এক প্রতিবেদনে মার্কিন সাময়িকী ফোর্বস জানিয়েছে, বিভিন্ন অ্যাপ এবং পরিধেয় সেন্সরের মাধ্যমেই স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ করবে ‘গুগল ফিট’ নামের ওই প্ল্যাটফর্ম।

প্রতিষ্ঠানটির নতুন এই স্বাস্থ্যসেবার মূল লক্ষ্য হচ্ছে বিপুল সংখ্যক মানুষের ওজন, খাদ্যাভ্যাস, হৃদস্পন্দন ইত্যাদি তথ্যের ভিত্তিতে একটি স্বাস্থ্যবিষয়ক প্ল্যাটফর্ম গড়ে তোলা। ব্যবহারকারীর অনুমতি নিয়ে বিভিন্ন অ্যাপেও তথ্যগুলো নেওয়া যাবে বলেই জানিয়েছে ফোর্বস।

এই প্রসঙ্গে গুগল বলেছে, “আমরা আরও সমন্বিত অ্যাপ তৈরি করতে চাচ্ছি, যদি ব্যবহারকারী অনুমতি দেন তাহলে তার সম্পূর্ণ ফিটনেস তথ্য এই অ্যাপগুলো নিতে পারবে।”

ফোর্বসের তথ্য অনুসারে, স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সব তথ্য একত্রিকরণ করাই গুগলের লক্ষ্য। এর ফলে ডেভলপাররাও স্বাস্থ্যবিষয়ক বিভিন্ন অ্যাপ তৈরি করতে পারবেন এবং গ্রাহকরা অ্যাপগুলোর সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

বিগত দুই মাসে স্যামসাং ‘সামি’ এবং অ্যাপল ‘হেলথকিট’ নামে নিজ নিজ স্বাস্থ্যবিষয়ক সেবা চালু করেছে। নতুন লঞ্চ হওয়া গুগল ফিটের সঙ্গে হেলথকিট কার‌্যক্রমের মিল পাওয়া গেলেও, বর্তমান দৃষ্টিতে এই সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে গুগল এগিয়ে আছে।

নাইকি+, উইথিংস, রানকিপার বেসিস, অ্যাডিডাস অ্যান্ড মিয়ো তাদের নতুন সেবা গুগল ফিটের সঙ্গে কাজ করবে বলে জানিয়েছে গুগল। অন্যদিকে অ্যাডিডাস অ্যান্ড মিয়ো গুগল ফিটের জন্য হৃৎপিণ্ডের গতি পর্যবেক্ষণ করতে পারবে এমন হাতের ব্যান্ড তৈরি করেছে বলেও জানিয়েছে ফোর্বস।

শেয়ার