‘বিষ’ বন্ধ করুন: প্রধানমন্ত্রীকে রওশন

Raushon
সমাজের কথা ডেস্ক॥ খাদ্যে ফরমালিন প্রয়োগ বন্ধ করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জোর পদক্ষেপ চেয়েছেন বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ।
শনিবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে রওশন বলেন, “আপনি যদি বঙ্গবন্ধু কন্যা হয়ে থাকেন তাহলে খাদ্যে বিষ বন্ধ করুন। আপনার মনে দেশের মানুষের জন্য দরদ নেই? বিষ বন্ধ করবেন না? এর দায়িত্ব আপনার।”
তিনি বলেন, “আপনার বাবা (বঙ্গবন্ধু) করে যেতে পারেননি। ভেজাল বন্ধে উনি ’৭৪ সালে আইন করেছিলেন। যে খাদ্যে ভেজাল মেশাবে তার হয় যাবজ্জীবন, না হয় ফাঁসি। সেই আইন কোথায়? বাস্তবায়ন নেই কেন? উনি (বঙ্গবন্ধু) যদি চিন্তা করতে পারেন আপনি (শেখ হাসিনা) কেন পারছেন না?”
শেখ হাসিনাকে রাতে বের হয়ে মানুষের অবস্থা সরেজমিন দেখার পরিদর্শনের পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, “মোঘল বাদশাহরা রাতে বের হতেন। আপনি রাতে বেরিয়ে দেখেন। বাতাসের কী অবস্থা? মানুষ কিভাবে বাঁচে? নদীর পানি দূষিত।
“আপনি ভালো পানি খাচ্ছেন বলে বুঝতে পারছেন না। মানুষ তো খাচ্ছে না। কাদের নিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়বেন? নদীর পানি দূষিত। সব দূষিত। তাহলে বাঁচব কী করে? দেশ শ্মশানের মতো হয়ে যাবে।”
খাদ্যে ফরমালিন মেশানো নিয়ে রসিকতা করে রওশন এরশাদ বলেন, “ফরমালিন খাচ্ছি তো, ডেডবডি কবরে পঁচবে না। আমরা আউলিয়া হয়ে যাব। পোকায় খাবে না। ভয় পাবে খেলে যদি মরে যায়। এটা তো ভালো কথা।”
তিনি বলেন, “৩ হাজার মন আমে ফরমালিন, ৮০০ মন জামে, ৩ লাখ লিচুতে। কেন শাস্তি হলো না? শাস্তি না হলে অন্যায় করতেই থাকবে। মাছে, মাংসে, আচারে বিস্কিটে, জেলিতে এমনকি ধনে পাতাতে ফরমালিন। এই যদি হয় মানুষ খাবে কী? ফরমালিন নিয়ন্ত্রণ আইনে অস্পষ্টতা। ১৭ হাজার টন ফরমালিন দেশে এসেছে। এগুলোতে আমাদের পেটেই গেছে।”

শেয়ার