নওশীনের সঙ্গে কিছুক্ষণ ॥ ‘ভালো কাজ করে লুজার হতে চাই না’

nowsin
সমাজের কথা ডেস্ক॥ নওশীন। কথাবন্ধু হিসেবে শুরু, এরপর টিভি নাটকের নিয়মিত মুখ হয়ে উঠেছেন। কাজ করেছেন চলচ্চিত্রেও। সম্প্রতি নতুন আরেকটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। ৮ জুন এটিএন বাংলায় ‘নীড় খোঁজে গাঙচিল’, একুশে টিভিতে ‘থ্রি কমরেডস’ ও ‘চোখের বালি’সহ তার অভিনীত বেশ কিছু ধারাবাহিক নাটক প্রচার হবে।

আপনার নতুন ছবি ‘আমরা যারা মা-বাবা’র কাজ করবেন কবে থেকে?
নওশীন : এ মাসের শেষের দিকে শুটিং শুরুর কথা ছিল। কিন্তু পরিচালক শাহরিয়ার নাজিম জয় এখনও আমার কাছ থেকে নির্দিষ্ট সময় চাননি। দৃশ্যধারণ কবে শুরু হতে পারে, সেটাও বলেননি। এ কারণে এখনই ছবিটি নিয়ে কিছু বলতে পারছি না। তবে আমি এতে কাজ করব, এটা নিশ্চিত।

এর আগে তিনটি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। কিন্তু এখনও কোনোটিই মুক্তি পায়নি। এ ছবির ভাগ্যেও তেমন অনিশ্চয়তার আশঙ্কা আছে?
নওশীন : আমার প্রথম ছবি ‘শোয়াচান পাখি’র পর ‘হ্যালো অমিত’ এবং ‘দুদু মিয়া’য় কাজ করেছিলাম। বিভিন্ন কারণে ছবিগুলো আটকে আছে। তবে ‘আমরা যারা মা-বাবা’ যেহেতু ইমপ্রেস টেলিফিল্মের, তাই মুক্তি না পাওয়া কিংবা অর্ধেক কাজ হয়ে বন্ধ হবে না, এটুকু আশা আছে। দেখা যাক, সবশেষে কী হয়!

আপনার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘ইহান ক্রিয়েশন্স’ থেকে নতুন নাটক নির্মাণের খবর শোনা যাচ্ছে না।
নওশীন : এখন নাটকপাড়ার যে অবস্থা, তাতে প্রযোজনা করা দিন দিন কঠিন হয়ে পড়ছে। এই অবস্থায় ভালো কাজ করলে লাভের মুখ দেখা যাবে না, আবার মুনাফা করতে গেলে ভালো কাজ হবে না। যেহেতু নাটক নির্মাণে অর্থলগ্নি করতে হয়, তাই লাভের দিকটাও তো দেখতে হবে। আমি ভালো কাজ করে লুজার হতে চাই না। তাই আপাতত নাটক নির্মাণ বন্ধ রেখেছি।

আপনার ফ্যাশন হাউস ‘সিগনেচার বিডি’ কেমন চলছে?
নওশীন : মোটামুটি ভালোই চলছে।

৮ জুন আপনার অভিনীত কয়েকটি ধারাবাহিক নাটক প্রচার হবে বিভিন্ন চ্যানেলে। এখন ধারাবাহিক নাকি একক, কোনটাকে প্রাধান্য দিচ্ছেন?
নওশীন : সামনে রোজার ঈদ, তাই ঈদের জন্য একক নাটকেই অভিনয় করছি বেশি। ধারাবাহিকের কাজ আপাতত কমিয়ে দিয়েছি।

শুনেছিলাম আপনি নাটক লিখছেন। চিত্রনাট্য কতদূর এগোলো?
নওশীন : একটি নাটক লেখা শেষ। নাম এখনও ঠিক করিনি। পরিবারের মা-বাবা ও মেয়ের কাহিনী নিয়ে এটি লেখা। আরেকটা চিত্রনাট্য তৈরির কাজ শুরু করেছি। অভিনয়ের ব্যস্ততায় ওটা নিয়ে বসা হচ্ছে না। পরিকল্পনা আছে, আমার নিজের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকেই নাটক দু’টি নির্মাণ করবো।

আপনি রেডিও-টিভিতে উপস্থাপনা করেছেন দীর্ঘদিন। সে নস্টালজিয়া কাজ করে?
নওশীন : মাঝে মাঝে নস্টালজিয়ায় ভুগি। কিন্তু এখন বেশিরভাগ অনুষ্ঠানের বেহাল দশা দেখলে মনে হয়, উপস্থাপনায় নিয়মিত না হয়ে ভালোই করেছি। তবে খুব বেশি ইচ্ছা হলে, এখনো বিশেষ বিশেষ দিবসের অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করি।

শেয়ার