চৌগাছায় আলমগীর হত্যার ঘটনায় ৫ জনের নামে আদালতে মামলা

mamla
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ চৌগাছা উপজেলার আন্দুলিয়া গ্রামের আলমগীর হোসেনকে হত্যার অভিযোগে স্ত্রী শ্বশুরসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ দেয়া হয়েছে। নিহতের মা নুরজাহান বেগম সোমবার যশোর আদালতে এ মামলা করেন। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মিল্টন হোসেন তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দিয়েছেন চৌগাছা থানার ওসিকে।
আসামিরা হলো, আন্দুলিয়া গ্রামের শফিউদ্দিন, ছেলে সোহেল ও মেয়ে সীমা খাতুন, ঝিনাইদহ মহেশপুরের জলিলপুর গ্রামের হাবিবুর রহমান ও তার স্ত্রী খোদেজা খাতুন।
জানাগেছে, আসামি হাবিবুর রহমান ও খোদেজা খাতুন ঢাকায় গিয়ে বাসা বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করতো। আলমগীর হোসেন ও তার স্ত্রী সীমা খাতুনকে ভাল কাজ দেয়ার কথা বলে গত ফেব্রুয়ারি মাসে ঢাকায় নিয়ে যায় হাবিবুর রহমান। হাবিবুরের বাসায় থেকে তারাও কাজ শুরু করে। ১৩ মার্চ আলমগীরের শ্বশুর ও শ্যালক তাদের বাসায় বেড়াতে যায়। ১৮ মার্চ আসামিরা আলমগীরকে মারপিটের পর হত্যা করে। পরদিন আলমগীরের লাশ বাড়িতে এনে আসামিরা পালিয়ে যায়। পরে খোঁজখবর নিয়ে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নিহতের মা আদালতে এ মামলা করেন।

শেয়ার