২,০০০,০০০, ০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০, ০০০,০০০ ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা

kotipuron
সমাজের কথা ডেস্ক॥
আঙ্গুলের মাথায় কুকুরের ছোট্ট কামড়। তার জন্য অ্যাত্ত বড় ক্ষতিপূরণের মামলা! সবাই অবাক। নিউইয়র্কের এক বাসিন্দা মামলাটি ঠুকে দিয়েছেন আর ক্ষতিপূরণ চেয়েছেন। বিশ্বে কোনো কালে কেউ এত অংকের ক্ষতিপূরণ চায়নি কোনো ঘটনায়।
অ্যান্টন পুরিসিমা নামের এই ব্যক্তি ২,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০,০০০ ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়েছেন। আর মামলার বিবাদী করেছেন খোদ নিউইয়র্ক সিটি কর্তৃপক্ষ, ক্যাফে বেকারি অ বোঁ পাঁইন এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ব্র্যান্ড শপ কে-মার্টসহ আরও অনেককে।
পুরিসিমা হাতে লেখা মামলার কপিটি ম্যানহাটন কেন্দ্রীয় আদালতে জমা দেন গত ১১ এপ্রিল। এই মামলায় তিনি নিজেই নিজের আইনজীবী, নিজেই মক্কেল।
২২ পৃষ্ঠায় হাতে লেখা এই মামলার নথিতে পুরিসিমা দাবি করেছেন তার মাঝের আঙুলটির মাথায় কামড়ে দিয়েছে একটি ‘র‌্যাবিজ ইনফেক্টেড’ কুকুর। সিটি বাসে করে যাচ্ছিলেন তিনি। বাসের ভেতরেই এই কান্ড ঘটেছে। চিনা এক দম্পতি সেই কামড়ের দাগসহ ছবি তুলে নিয়েছেন। এরপর হাসপাতালে চিকিৎসা হয়েছে পুরিসিমার।
এই মামলায় তিনি বলেছেন, কুকুরের কামড়ে যে যন্ত্রণা তার হয়েছে তার দাম কোনো টাকার অংকেই দেওয়া সম্ভব নয়। হাতের আঙুলে ব্যান্ডেজ করার আগেরই রক্তাক্ত অবস্থার একটি ছবিও মামলার নথিতে সংযুক্ত করেছেন পুরিসিমার।
মামলার শুনানিতে পুরিসিমা বলেন, এই ঘটনায় তিনি নাগরিক অধিকার লঙ্ঘনের শিকার, জাতিগত বৈষম্যের শিকার, একই সঙ্গে বিভিন্নভাবে বঞ্চনা, লাঞ্ছনা, প্রতারণা, মানসিক অবস্থার ওপর ইচ্ছাকৃত আঘাত, ষড়যন্ত্রের শিকার। একই সঙ্গে তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে এই ঘটনার মধ্য দিয়ে।

নিউইয়র্ক সিটি, অ বোঁ পাঁইন ও কে-মার্ট ছাড়াও মামলার বিবাদীর দীর্ঘ তালিকায় রয়েছে কেয়ারপয়েন্ট হেলথ, হোবোকেন ইউনিভার্সিটি মেডিকেল সেন্টার, লিউকস ইমার্জেন্সি ডিপার্টমেন্ট, নিউইয়র্ক সিটি ট্রানজিট অথরিটি, এনওয়াইসি এমটিএ, লাগরডিয়া এয়ারপোর্ট প্রশাসন, এমি ক্যাগিউলা এবং ডাজ ১-১০০০।
মোট যে অর্থের ক্ষতিপূরণ তিনি চেয়েছেন তা এক কথা টু আনডেসিলিয়ন ডলার হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। অংকে লিখতে এজন্য ২ লিখে ৩৩টি শুন্যের প্রয়োজন।
বিশ্বের সবদেশ মিলে এখন যে পরিমান নগদ অর্থ থাকতে পারে তার চেয়েও বেশি এই অংক।
এমনকি অ বোঁ পাঁইন যদি এখনই এই বিশ্বটি কিনে নেয়। এর প্রতিটি মানুষকে যদি ততদিন কাজ করতে বলে যতদিন চন্দ্র, সূর্য, গ্রহ তারা টিকে থাকবে তাতে যে আয় হবে তা দিয়েও এই ক্ষতিপূরণ পরিশোধ সম্ভব হবে না।
মনে করার কারণ নেই এটিই পুরিসিমার প্রথম মামলা। এর আগেও তিনি মামলা ঠুকেছেন গণপ্রজাতন্ত্রী চীন সরকারের বিরুদ্ধে। এছাড়াও তার মামলার বিবাদীর তালিকায় রয়েছে ওয়েলস ফারগো, জেপি মর্গান, ওয়াচোভিয়ার মতো বড় বড় ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠান।
যুক্তরাষ্ট্রে স্যোশাল সিকিউরিটি কমিশনার ও ল্যাং ল্যাংক ইন্টারন্যাশনাল মিউজিক ফাউন্ডেশনকেও মামলায় জড়িয়েছেন এই অ্যান্টন পুরিসিমা।

শেয়ার