সাত খুনের ঘটনায় র‌্যাব কর্মকর্তাদের গ্রেপ্তারে তৎপরতা শুরু

7 Murder
সমাজের কথা ডেস্ক॥ নারায়ণগঞ্জে সাত খুনের ঘটনায় র‌্যাবের সাবেক দুই কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারে শীঘ্রই কর্মতৎপরতা দেখা যাবে বলে জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন। শুক্রবার দুপুর ১২ টার দিকে পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সামনে সদর দপ্তর থেকে চিঠি প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

পুলিশ সুপার বলেছেন, হাইকোর্টের আদেশ পালনে অবিরাম চেষ্টা করে যাচ্ছি। শীঘ্রই তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

যাদের গ্রেপ্তার করতে বলা হয়েছে তারা হলেন, র্যাব-১১ এর সাবেক সিও লে. কর্নেল তারেক সাঈদ মাহমুদ ও মেজর আরিফ হোসেন। তবে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ও র্যাব-১১ এর স্পেশাল ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানী নারায়ণগঞ্জ ক্যাম্পের সাবেক প্রধান লে. কমান্ডার এম এম রানার বিষয়ে এখনো কোনো চিঠি পায়নি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের ঘটনায় জড়িত বলে অভিযোগ ওঠার পর ওই তিন কর্মকর্তাকে বাধ্যতামূলক অবসর দেওয়া হয়। ৬ মে সেনাবাহিনীর দুজনকে অকালীন ও নৌবাহিনীর একজনকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয়। ১১ মে এই তিন কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

শেয়ার