ইজিবাইক চালক লিটন হত্যা মামলার আসামি আটক

atok
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরের চাঞ্চল্যকর ইজিবাইক চালক লিটন হত্যা মামলার আসামি সাফায়েতকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে কোতোয়ালি থানার এসআই স্বপন কুমার দাস তাকে তার বাড়ি থেকে আটক করেন। সে শহরের নাজির শংকরপুর এলাকার কোরবান আলীর ছেলে।
সূত্রে জানাগেছে, গত বছরের পহেলা জুলাই লিটন মাহমুদ নামে এক ইজিবাইক চালক দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হয়। ঘটনার দিন তার কাছে ইজিবাইক কেনার জন্য ২০ হাজার টাকা ছিল। ওই টাকা ছিনিয়ে নেয়ার জন্য নড়াইলের লোহাগড়া এলাকার গুলি সুমন নামে এক সন্ত্রাসী বিভিন্ন ধরণের পরিকল্পনা করতে থাকে। পরিকল্পনা অনুযায়ী লিটনের কাছে থাকা ইজিবাইকটি সন্ধ্যার পরে তারা ভাড়া নিয়ে শহরের বিভিন্নস্থানে ঘোরাফেরা করে। রাত আড়াইটার দিকে মুড়লী মোড় রেল ক্রসিংয়ের কাছে গিয়ে তারা সকলে মদ পান করার জন্য রাস্তায় ইজিবাইকটি রেখে ইসমাম ফিলিং স্টেশনের পিছনে রেল লাইনের উপরে যায়। তারা লিটনকে পর্যাপ্ত পরিমাণে মদ পান করিয়ে মাতাল করে তোলে। এ সময় লিটনের কাছে থাকা টাকা নেয়ার জন্য গুলি সুমন চেষ্টা করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়া হয়। এর পর লাবলু, টিটন, সাফায়াত, খোকন, জাহিদ তার হাত-পা চেপে ধরে। আর গুলি সুমন তার গলায় ছুরি দিয়ে জবাই করে। এর পর টাকা ও ইজিবাইক চালিয়ে তারা মণিহার এলাকার চয়নিকা পেট্রোল পাম্পে রেখে ব্যাটারি চারটি খুলে নিয়ে চলে যায়। র‌্যাব-৬ যশোর ক্যাম্পের সদস্যরা কয়েকদিন পর টিটন, রাজিব ও লাবলুকে আটক করে। টিটন ও রাজিবকে পুলিশ আদালতে প্রেরণ করলে তারা লিটনকে জবাই করে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। এ মামলার অপর আসামি সাফায়েতকে এদিন পুলিশ আটক করে।

শেয়ার