সৌদি আরবে অগ্নিকাণ্ডে ৯ বাংলাদেশির মর্মান্তিক মৃত্যু

soudi
সমাজের কথা ডেস্ক॥ সৌদি আরবে একটি আসবাবপত্রের কারখানায় আগুনে পুড়ে মারা গেছেন অন্তত ১১ জন, তাদের মধ্যে নয়জন বাংলাদেশি বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে।
মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির রাজধানী রিয়াদে স্থানীয় সময় সোমবার রাত ১০টার দিকে এই অগ্নিকাণ্ড ঘটে বলে সৌদি সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে।
নিহত বাংলাদেশিদের মধ্যে সাতজনের বাড়ি কুমিল্লা জেলায়। তারা হলেন- মো. জালাল, আব্দুল গাফফার, বাহাউদ্দিন, শাহআলম, নাজির হোসেন, মতিউর রহমান ও সেলিম।
এদের মধ্যে গাফফার ছাড়া সবার বাড়ি তিতাস উপজেলায়। গাফফার মেঘনা উপজেলার শিবনগর গ্রামের নুরু মিয়ার ছেলে।
নিহত অন্য দুজন মোহাম্মদ আক্কাসের বাড়ি মাদারীপুরে এবং জাকির হোসেনের বাড়ি ফেনীতে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঃপ্রচার বিভাগের পরিচালক নৃপেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ জানিয়েছেন।
এই শ্রমিকরা রিয়াদের উপকণ্ঠে বাংলাদেশি এক ব্যক্তির মালিকানাধীন ‘তিতাস ফার্নিচারে’ কাজ করতেন। শিখা সানাইয়া এলাকার ওই কারখানার ১৫ শ্রমিকের ১৩ জনই বাংলাদেশি।
রিয়াদে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, “প্রত্যেকের শরীর এতটাই পুড়েছে যে কাউকেই চেনা যাচ্ছে না। কারখানার অন্য শ্রমিকরা বলছে, নিহতদের মধ্যে নয়জন বাংলাদেশি।”
প্রায় দেড় বছর আগে মধ্যপ্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত হন ছয় বাংলাদেশি। তার পাঁচ মাস আগে বাহরাইনে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান ১৩ জন।
আমিরাতের দুবাইয়ে ২০১০ সালে অগ্নিকাণ্ডে চার বাংলাদেশি নিহত হন।

শেয়ার