আন্দোলন করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগ বন্ধ করবেন না

DMC
সমাজের কথা ডেস্ক॥ শিক্ষানবিস চিকিৎসকরা আন্দোলন করবেন আর হাসপাতালের জরুরি বিভাগ ইচ্ছেমতো বন্ধ করে দেবেন, এদিকে গ্রাম থেকে অসুস্থ্ রোগীরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে এসেও চিকিৎসা না পেয়ে মরে যাবেন এ হতে পারে না। এমনটা চিকিৎসা পেশার মতো একটি মহৎ পেশায় কোনো দিনই কাম্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য সচিব নিয়াজ উদ্দিন মিয়া।

সোমবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের প্রশাসনিক ব্লকের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, সারাদেশের অসুস্থ্ রোগীরা চিকিৎসার জন্য ঢামেকে আসেন। আর তাদের জিম্মি করে শিক্ষানবিস চিকিৎসকরা নিজেদের আন্দোলন পরিচালনা করে যাবেন এটা হতে দেওয়া যায় না। আন্দোলন হতেই পারে কেননা তাদের একজনকে আঘাত করা হয়েছে। কিন্তু এর প্রতিবাদে রোগীদের জিম্মি করে আন্দোলন হতে পারে না।

তিনি বলেন, ঢামেক জরুরি বিভাগ ১ মিনিটের জন্যও বন্ধ থাকতে পারে না। আমি আশা করবো রোগীদের কথা চিন্তা করে আগামীতে এই ধরনের সংস্কৃতি বন্ধ হবে। সেই সঙ্গে বন্ধ হবে চিকিৎসকদের কর্মবিরতির সংস্কৃতিও।

মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢামেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান, সহকারী পরিচালক মুশফিকুর রহিম, সহযোগী পরিচালক খাজা আবদুর গফুর প্রমুখ।

কর ও দাম বাড়িয়ে ধূমপান কমানো সম্ভব

বাংলানিউজ॥ সিগারেটের দাম বাড়িয়ে ও এর ওপর কর আরোপ করে ধূমপানে নিরুৎসাহিত করা সম্ভব বলে মনে করছে সম্মিলিত তামাক বিরোধী জোট।

তাই সিগারেটের সর্বনিম্ন দাম ৩ টাকা নির্ধারণ ও সকল স্তরের সিগারেটের ওপর ৭০ শতাংশের বেশি কর নির্ধারণ করতে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি জানানো হয়।

‘ট্যাক্স হবে ৭০ শতাংশ, দাম হবে তিন টাকা, ধূমপান কমবে, আসবে সুদিন’ প্রতিপাদ্য নিয়ে সস্তা মূল্যের সহজলভ্য সিগারেটের মূল্যবৃদ্ধি করে সর্বনিম্ন তিন টাকা ও সর্বনিম্ন ৭০ শতাংশ কর আরোপ করে দেশের জনগণকে ধূমপানে নিরুৎসাহিত করণকল্পে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এসব দাবি বাস্তবায়িত হলে রাজস্ব আদায় ও তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে তা সহায়ক হবে বলেও বক্তব্য সংগঠনের নেতাদের।

সস্তা সিগারেটের ক্ষতিকর প্রভাব ও এর বিস্তার সম্পর্কে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, জাস্টিস অ্যান্ড ল’ইয়ার সোসাইটির সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার ড. এম হায়দার আলী, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক তুসার রেহমান প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সিগারেটের দাম কম হলে বিষ কম হবে বলে অনেকেই মনে করেন। এসব ভুল ধারণা ভাঙাতে হবে।

আবুল মকসুদ তামাকের চাষ নিয়ন্ত্রণে সরকারের প্রতি দাবি জানান।

শেয়ার