এএফসি প্রেসিডেন্টস কাপের মূল পর্বে শেখ রাসেল

shek rasel

সমাজের কথা ডেস্ক॥ শ্রীলঙ্কায় ইতিহাস গড়ল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। নিজেদের শেষ ম্যাচে ভুটানের ইয়ুগেন অ্যাকাডেমিকে ৪-০ গোলে হারিয়ে প্রথম বাংলাদেশী ক্লাব হিসেবে এএফসি প্রেসিডেন্টস কাপের মূল পর্বে উঠেছে তারা।
ড্র করলেই চলতো, তবে বড় এই জয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই মূল পর্বে উঠলো রাসেল। পরের ম্যাচে পাকিস্তানের কেআরএল ফুটবল ক্লাবকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শেখ রাসেলের সঙ্গী হয়েছে শ্রীলঙ্কা বিমানবাহিনী।
এর আগে পাঁচবার অংশ নিয়েও গ্রুপ পর্ব পার হতে পারেনি ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। প্রথমবারের চেষ্টাতেই শেখ রাসেল সাফল্য পেল।
কোচ বদলের পর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ধুকতে থাকা শেখ রাসেল এএফসির এই টুর্নামেন্টে কেমন করবে তা নিয়ে অনেকেরই সংশয় ছিল। শ্রীলঙ্কায় গিয়ে অন্য রূপে দেখা গেলো গতবারের বাংলাদেশ লিগ চ্যাম্পিয়নদের। প্রথম ম্যাচে ড্র করলেও পারের দুই ম্যাচে দারুণ খেলেছে তারা।
রোববার শেখ রাসেলের জয়ের মূল নায়ক জোড়া গোল করা মিডফিল্ডার মিঠুন চৌধুরী। আগের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিমান বাহিনীর বিপক্ষেও জোড়া গোল করেছিলেন জাতীয় দলের এই খেলোয়াড়।
ম্যাচের ১৪ মিনিটে শেখ রাসেলের প্রথম গোলটি আসে অবশ্য হাইতির ফরোয়ার্ড প্যাসকেল মিলিয়েনের পা থেকে। মিঠুনের পাস ধরে প্যাসকেল বক্সে ঢুকে লক্ষ্যভেদ করেন।
৭ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মিঠুন। প্যাসকেলের বাড়ানো বল ধরে বক্সে ঢুকে আলতো টোকায় জালে জড়ান তিনি।
২৮তম মিনিটে প্যাসকেলের ক্রস থেকে গোল করেন মিডফিল্ডার শাকিল আহমেদ।
৮৮তম মিনিটে ব্যক্তিগত দ্বিতীয় গোল করেন মিঠুন। এ আসরে এটি তার চতুর্থ গোল।
এই জয়ের সুবাদে ৩ ম্যাচ থেকে ৭ পয়েন্ট নিয়ে মূল পর্বে ওঠে শেখ রাসেল। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের কেআরএল ফুটবল ক্লাবের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করার পর শ্রীলঙ্কার বিমানবাহিনীকে হারিয়েছিল ৫-০ গোলে হারিয়েছিল তারা।
মূল পর্বে ওঠায় শেখ রাসেল সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী দলের খেলোয়াড়দের পুরস্কার হিসেবে ১০ হাজার ডলার দিয়েছেন।
এই সাফল্যে রাসেলের কোচ দ্রাগান দুকানোভিচ খুবই খুশি।
“আমি আশাবাদী ছিলাম এই আসরে আমরা ভালো কিছু করবো। তবে এতোটা সফলতা পাবো তা ভাবিনি। পুরো টুর্নামেন্টেই ছেলেরা অসাধারণ খেলেছে। দেশে ফিরেও ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে চাই আমরা।”
অধিনায়ক বিপ্লব ভট্টাচার্য্য বলেন, “ষোল কোটি মানুষের ভালোবাসা ও প্রত্যাশার মর্যাদা রাখতে পেরেছি, এটাই আমাদের কাছে সবচেয়ে আনন্দের।”
আগামী ২২-২৮ সেপ্টেম্বরের টুর্নামেন্টের মূল পর্ব হবে। তবে তার ভেন্যু এখনও ঠিক হয়নি। ৩ গ্রুপের ৬টি দল মূল পর্বে খেলবে।

শেয়ার