শালিখায় বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ ॥ প্রেমিকের বাড়িতে অন্তঃসত্বা কিশোরীর বিষপান

premiker barite obosthan
শালিখা (মাগুরা) প্রতিনিধি॥ শালিখায় সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে লম্পট প্রেমিক। পরে বিয়েতে রাজি না হওয়ায় ঐ লম্পটের বাড়িতেই বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে কিশোরী। ঘটনাটি ঘটেছে শালিখার উত্তর শরুশুনা গ্রামে। গত ২৬ এপ্রিল শরুশুনা গ্রামের ওই কিশোরী (১৪) প্রতিবেশী কালাম (২২) পিতা-লাল মিয়া (বাঙ্গাল) বাড়িতে স্ত্রীর দাবীতে উঠলে কালাম তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। ঐ সময় সে তার বাড়ীতেই বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। ঐ ঘটনার পর তাকে দ্রুত শালিখা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সরেজমিন তদন্তে গেলে জানা যায় কালাম ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভনে ০১/০২/২০১৪ইং তারিখে একটি নীল কাগজে স্বাক্ষর করে স্বামী-স্ত্রীর মত গোপনে মেলা মেশায় লিপ্ত হয়। ঘটনার মেয়েটি ৪ মাসের অন্তঃসত্তা হয়ে পড়ে। বিষয়টি কালামকে জানালে গত ২৪ এপ্রিল কালাম ও তার পরিবারের লোকজন কিশোরীকে তাদের বাড়িতে নিয়ে গর্ভপাত ঘটায়। ঐ ঘটনার পর মেয়েটি অসুস্থ্য হয়ে পড়লে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়। পরে কালাম ও তার পরিবারের লোকজন নির্যাতন ও তাকে স্ত্রী হিসাবে স্বীকৃতি না দিলে সে ঐ বাড়িতেই আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে বিষপান করে। এ ব্যাপারে মেয়েটির বড় ভাই জানান, কালামের পরিবারের লোকজন প্রভাবশালী, তাদের হস্তক্ষেপে আমরা হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পর্যন্ত আনতে পারিনি এবং আমাদের মামলা না করার জন্য হুমকি দিচ্ছে। তারপরও আমি আমার এই কিশোরী বোনের যে ক্ষতি হয়েছে তার সঠিক বিচার চাই।

শেয়ার