কলারোয়া সীমান্তে অ্যানাগ্রা ট্যাবলেট উদ্ধার বারবার ফসকে যাচ্ছে চোরাকারবারী চক্র

anagra teblet
কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি ॥ কলারোয়া সীমান্তে বিজিবি’র পৃথক অভিযানে ভারতীয় দেড় হাজার পিচ অ্যানাগ্রা ট্যাবলেট উদ্ধার হয়েছে। তবে এবারও ফসকে গেছে চোরাকারবারীরা। তাদের একজনকেও আটক করতে পারেনি বিজিবি। প্রতিবারই ফসকে যাওয়ার তথ্য প্রচার করে বিজিবি নিজেদের বিতর্কিত করে তুলছে এমন মন্তব্য সচেতনমহলের। বিজিবি’র এই গতানুগতিক অভিযান ও প্রেসব্রিফিং নিয়ে সরকারের উপরিমহলে অসন্তোষ রয়েছে। অস্বস্তিতে খোদ বিজিবি’র উর্দ্ধতন কর্মকর্তারাও। একাধিক সুত্রের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে।
চান্দুড়িয়া বিওপি’র নায়েব সুবেদার নুরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, তাঁর নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা বুধবার ভোর ৫ টার দিকে সীমান্তবর্তী কাদপুর গ্রাম থেকে ভারতীয় ৫০০ পিচ অ্যানাগ্রা ট্যাবলেট উদ্ধার করেন। অপরদিকে হিজলদি বিওপি’র নায়েব সুবেদার কামাল হোসেন সাংবাদিকদের জানান, তাঁর নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সীমান্তবর্তী হিজলদি গ্রামের তালতলা নামক স্থান থেকে ১ হাজার পিচ অ্যানাগ্রা ট্যাবলেট উদ্ধার করেন। উদ্ধারকৃত দেড় হাজার পিচ অ্যনাগ্রা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ১ লাখ ৫ হাজার টাকা। এদিকে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় বিজিবি’র কর্মকান্ড নিয়ে নানা প্রশ্ন ওঠায় সরকারের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ নেপথ্য কারণ খুঁজে বের করতে নানা পন্থা অবলম্বন করতে যাচ্ছে। প্রত্যেক বারই উদ্ধারকে পরিত্যক্ত আর কারবারী ফসকে যাওয়ার গতানুগতিক বক্তব্যে খোদ বিজিবি’র উপরিমহল অস্বস্তিতে রয়েছেন। যেকারণে সীমান্ত বিজিবি’র কর্মকান্ডের দিকে কড়া নজর রাখা হচ্ছে এমন তথ্য সুত্রের।

শেয়ার