পদ হারাচ্ছেন বিএনপির অনেক সিনিয়র নেতা

BNP logo
সমাজের কথা ডেস্ক॥
পদ হারাচ্ছেন বিএনপির অনেক সিনিয়র নেতাই। সরকার বিরোধী আন্দোলনে সক্রিয় না থাকা, শারীরিক অসুস্থতা, সুবিধাবাদিতা, দুর্নীতি এবং সরকারের সঙ্গে গোপন আঁতাতের অভিযোগে পদ হারাতে পারেন তারা।
আন্দোলনে পিঠ বাঁচিয়ে চলার কারণে অনেক সিনিয়র নেতার ওপরই ক্ষুব্ধ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। তাদের বিরুদ্ধে খুব শিগগিরই ব্যবস্থা নিচ্ছেন এমনটাই জানা গেলে বিএনপির গুলশান অফিসের সূত্রে।
জানা গেছে, সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় নেই এমন আলঙ্কারিক নেতাদের আর পদে রাখতে চাইছেন না দলটির প্রধান খালেদা জিয়া। তবে কাউন্সিলের মাধ্যমেই তাদের ভাগ্য নির্ধারণ করা হবে বলে জানা গেছে বিএনপির উচ্চ পর্যায়ের সূত্রে।
ইতোমধ্যেই তৃণমূল পুনর্গঠনের কাজে হাত দিয়েছে বিএনপি। ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে অনেক জেলা কমিটি। জেলা কমিটিগুলোর পর পুনর্গঠন হবে কেন্দ্রীয় কমিটি। পাশাপাশি পুনর্গঠন করা হবে অন্যান্য অঙ্গ সংগঠনও।
৫ জানুয়ারির নির্বাচন প্রতিরোধের জন্য সরকার বিরোধী আন্দোলনে যে সব নেতাদের ডেকেও পাওয়া যায়নি, গ্রেফতারের ভয়ে যারা নেত্রীর নির্দেশ পালন করেননি, দলের সঙ্গে যোগাযোগ নেই, বার্ধক্যক্লিষ্ট, সুবিধাবাদী ও সুযোগ সন্ধানী, সরকারের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখেন এমন নেতাদের তালিকা হচ্ছে। এ সব অভিযোগে এমনকি স্থায়ী কমিটি, জাতীয় নির্বাহী কমিটি এবং উপদেষ্টা পরিষদ থেকে বাদ পড়তে পারেন অনেক হাইপ্রোফাইল নেতা।
তবে দল থেকে বহিষ্কার বা একেবারেই বাদ না দিয়ে তাদের বিএনপি প্রাথমিক সদস্য পদে রাখা হবে এমনটাই জানালেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক শীর্ষ নেতা।

শেয়ার