সোনালী ব্যাংক-হলমার্ক দুর্নীতিতে ১০ মামলার চার্জশিট অনুমোদন

shonali hall mark
সমাজের কথা ডেস্ক॥
বহুল আলোচিত হলমার্ক দুর্নীতির ২৭টি মামলার মধ্যে ১০ মামলার অনুমোদন দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এ মামলায় আসামি করা হয়েছে ২১জনকে। এরমধ্যে সোনালী ব্যাকেংর ১১ কর্মকর্তা ও হলমার্কের সহযোগী তিনটি প্রতিষ্ঠানের ১০ জন রয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে দুদকের নিয়মিত বৈঠকে ১০টি মামলার চার্জশিটের অনুমোদন দেওয়া হয়। অনুমোদনের বিষয়টি বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেছেন দুদক কমিশনার (তদন্ত) মো. সাহাবুদ্দিন চুপ্পু।

তিনি জানান, ২৭টি মামলার মধ্যে ১০টির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে, বাকিগুলো যাচাই-বাছাই করে দেখা হচ্ছে।

যাদের বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে তারা হলেন, সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন কবির, ডিএমডি মাইনুল হক, ডিজিএম শেখ আলতাফ হোসেন, মোহাম্মদ সফিজ উদ্দিন আহমেদ, এজিএম কামরুল হোসেন খান, এজাজ আহমেদ।

এছাড়া জিএম অফিসের জিএম ননী গোপাল নাথ, মীর মহিদুর রহমান এবং সোনালী ব্যাংক হোটেল শেরাটন শাখার ডিজিএম এ কে এম আজিজুর রহমান, এজিএম মো. সাইফুল হাসান, এক্সিকিউটিভ অফিসার মো. আব্দুল মতিন। এছাড়াও হলমার্কের সহযোগী প্রতিষ্ঠান পেরাগন নিট কম্পোজিটের এমডি মো. সাইফুল ইসলাম রাজা, পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন, মো. মকুল হোসনে।

ডিএন স্পোর্টসের চেয়ারম্যান মোতাহার উদ্দিন চৌধুরী, এমডি শফিকুর রহমান জন, পরিচালক ফাহিমিদা আক্তার শিখা, এবং খান জাহান আলী সোয়েটরের চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম, এমডি আবদুল জলিল শেখ, মো. রফিকুল ইসলাম, পরিচালক মীর মো, শওকত আলী বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন দেওয়া হয়।

চার্জশিটে এসব আসামির বিরুদ্ধে ১৮ কোটি ৬৮ লাখ ৬১ হাজার ৪শ’ ৫৭ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করা হয়েছে।

শেয়ার