দরিদ্রদের কর্মসংস্থানে ১০০ কোটি টাকার প্রকল্প সরকারের ॥ মানিকখালী সেতুসহ আশাশুনি-পাইকগাছা সড়ক উন্নয়নে বরাদ্দ ১০৯ কোটি

PM ECNEC
সমাজের কথা ডেস্ক॥ উত্তরাঞ্চলের ৩৫ উপজেলায় দরিদ্রদের কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিতে ১০০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এই প্রকল্পটিসহ ৪৩৫ কোটি টাকার চারটি উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদিত হয়।
সভায় অনুমোদিত অন্য তিন প্রকল্প হচ্ছে- ৬৯ কোটি ২৯ লাখ টাকার চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকতর সম্প্রসারণ ও উন্নয়ন, ১০৯ কোটি টাকার মানিকখালী সেতু নির্মাণসহ আশাশুনী-পাইকগাছা সড়ক উন্নয়ন এবং ১৬২ কোটি টাকার ট্রান্সমিশন ইফিসিয়েন্সি ইম্প্রুভমেন্ট থ্রু রিয়্যাকটিভ পাওয়ার কমপেনসেশন অ্যান্ড রি-ইনফোর্সমেন্ট অব গোয়ালপাড়া সাব-স্টেশন প্রকল্প।
এই চার প্রকল্পে ৩১৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা দেবে সরকার। প্রকল্প সাহায্য থেকে আসবে ৯৯ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। বাকি অর্থ সরকারের একটা সংস্থা থেকে জোগান দেয়া হবে।
‘উত্তরাঞ্চলের দরিদ্রদের কর্মসংস্থান নিশ্চিতকরণ কর্মসূচি’ নামের প্রকল্পটি সম্পূর্ণ সরকারি অর্থে বাস্তবায়িত হবে। এটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি)।
রংপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, নীলফামারী ও লালমনিরহাট জেলার ৩৫টি উপজেলায় এই প্রকল্প ২০১৯ সালের মার্চ পর্যন্ত চলবে। এর প্রধান লক্ষ্য উৎপাদনকারীদের তৈরি পণ্যের বাজারজাতের সুবিধা সৃষ্টি।
এই প্রকল্পের মাধ্যমে ৩৩ হাজার ৬০০ জনকে ৬০ দিন মেয়াদি দক্ষতা উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানমূলক প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যসেবা, শিশুর যতœ, পুষ্টি, নেতৃত্ব, বাল্য বিবাহের কুফল, শিশু শ্রম, প্রসূতি মায়ের সেবা, নারী ও শিশু অধিকার ইত্যাদি সামাজিক সচেতনতামূলক বিভিন্ন বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করা হবে।
পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের বলেন, “এই প্রকল্পের মাধ্যমে উত্তরাঞ্চলে দরিদ্রতা হ্রাস পেয়ে সাধারণ জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক সক্ষমতা তৈরি হবে।”
দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্যে সব মৌসুমে খাদ্য নিরাপত্তা এই প্রকল্পের মাধ্যমে নিশ্চিত করা যাবে বলে আশাবাদী মন্ত্রী।
শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, ডাক, টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার