চৌগাছায় ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে ৪০ কোটি টাকার সম্পত্তি দখল ॥ ১৪৪ ধারা জারি

dokhol
নিজস্ব প্রতিবেদক, চৌগাছা॥ যশোরের চৌগাছা বাজারে প্রায় তিন বিঘা জমি জোর করে দখল করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রায় ৪০ কোটি টাকা মূল্যের এই সম্পত্তি নিয়ে আদালতে মামলা চললেও সকল আইন কানুন অমান্য করে একটি প এই জমি জোর পূর্বক দখল করে নিয়েছে। রোববার জমির এক মালিক আদালতে এ বিষয়ে একটি অভিযোগ করলে আদালত সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করেন। জমির মূল মালিকরা তাদের দখল হয়ে যাওয়া সম্পত্তি ফিরে পেতে প্রশাসনের হস্তপে কামনা করেছেন।
সূত্র জানায় চৌগাছা-যশোর সড়কে পৌরভবনের সামনে ৯৪ শতাংশ জমি ক্রয় সূত্রে স্থানীয় ১৩ জন মালিক দখল করে বসত বাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মান করেন। দেশ স্বাধীনের পর ১৯৭৮ সালে জমির তৎকালিন মালিক অলি উল্লাহ ওরফে অলি মিয়ার কাছে থেকে বর্তমান মালিক রফি উদ্দিন ব্যাপারী, শফি উদ্দিন ব্যাপারী ও আবু তাহের ৯৪ শতাংশ জমি ক্রয় করেন। ক্রয় সূত্রে এই জমির তিন মালিক বিভিন্ন সময়ে জমির কিছু অংশ আরও ১০ ব্যক্তির কাছে বিক্রি করেন। বর্তমানে যার মালিক সংখ্যা ১৩ জন। গত ৩ বছর আগে এই জমির পূর্বের মালিক অলি উল্লাহ’র ওরশ হাজেরা বেগম হঠাৎ করে জমির মালিক দাবি করে বসেন। এ সময় তিনি আদালতেরও শরণাপন্ন হন। বর্তমান জমি মালিকদের নামে সে সময় তিনি একে একে তিনটি মামলা দায়ের করেন। আদালতে এই মামলা এখনও বিচারাধিন আছে। দীর্ঘ ৩৫/৩৬ বছর পর গত ১৫ মার্চ হঠাৎ করে জমির মালিক দাবিদার হাজেরা বেগম সন্ত্রাসী ভাড়া করে সমুদয় জমি দখল করে নেয়। সন্ত্রাসীরা এই জমির উপর স্থাপিত বসত বাড়ি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সব কিছুই দখল করে নেয়। প্রত্যদর্শীরা জানায়, সন্ত্রাসীরা সেদিন যে মহড়া প্রদর্শন করেছে তাতে মনে হয় জমির মূল মালিক হয়ত তারাই। সন্ত্রাসীরা এ সময় জমির বর্তমান মালিক রফি উদ্দিন ব্যাপারীসহ অন্য মালিকদের মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বসত বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয় বলে জানা গেছে। সন্ত্রাসীদের হুমকির মুখে কোন উপায়ন্তর না পেয়ে রফিসহ অধিকাংশ মালিক এখনও পর্যন্ত বাড়ি ঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। গত ৪ মে অত্যান্ত গোপনীয়তার সাথে রফি উদ্দিন ব্যাপরী যশোর চিপ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের আদালতে হাজির হয়ে বিচার প্রার্থনা করেন। তার দায়ের করা মামলার প্রেেিত আদালত সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করেন। সূত্র জানায়, গত ১৫ মার্চ উপজেলার সলুয়া গ্রামের জৈনিক ব্যক্তির ইন্ধনে শতাধিক সন্ত্রাসী এই জমির উপর উপস্থিত হয়ে তা দখল করে নেয়। এ সময় সেখানে জমির মূল মালিকগন সহ শতশত মানুষ উপস্থিত থাকলেও সন্ত্রাসীদের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায়নি। এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ আকরাম হোসেন বলেন, উপজেলার সলুয়া আফরা এলাকার কতিপয় সন্ত্রাসী রফি উদ্দিনের জমিসহ বাসা বাড়ি জোর পূর্বক দখল করে নেয়। এ অবস্থায় জমি মালিক রফি উদ্দিন ব্যাপারী আদালতের শরণাপন্ন হলে আদালত সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করেন। সেখানে আইন শৃংখলার যাতে কোন অবনতি না হয় তার জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শেয়ার