রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় ভোটার তালিকা হালনাগাদে সতর্কতা

nirbachon commision
সমাজের কথা ডেস্ক॥ এবারের ভোটার তালিকা হালনাগাদে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

আগেরবারের হালনাগাদে প্রায় ২০ হাজার রোহিঙ্গা ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইসির এই বাড়তি সর্তকতা।

বর্তমান কমিশনের অধীনে দ্বিতীয়বারের মতো ভোটার হালনাগাদ শুরু হচ্ছে ১৫ মে।

এবার তিন ধাপে দেশের ৫১৪টি উপজেলা ও থানায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ করা হবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

১৫ মে থেকে শুরু হয়ে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে তথ্য সংগ্রহের কাজ।

এরই মধ্যে ভোটার তথ্য সংগ্রহ ও নিবন্ধন কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করার জন্য নির্বাচন কমিশন বিভিন্ন পর্যায়ে সমন্বয় কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম কেন্দ্রীয়ভাবে পর্যবেক্ষণের জন্য ইতোমধ্যে তিনটি সমন্বয় কমিটি গঠন করা হয়েছে। ইসি সচিবকে প্রধান করে ১৮ সদস্যের কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটি, বিভাগীয় কমিশনারকে প্রধান করে ১২ সদস্যের ৮টি বিভাগীয় সমন্বয় কমিটি এবং জেলা প্রশাসককে প্রধান করে ১৮ সদস্যের জেলা সমন্বয় কমিটি গঠন করা হয়েছে।

২০০৯ ও ২০১২ সালের ধারাবাহিকতায় এবারও হালনাগাদ কার্যক্রম পরিচালনায় এ সব কমিটি করা হয়। কাজের গুরুত্ব ও কাজের অগ্রগতি বিবেচনায় প্রতিটি পর্যায়ে প্রয়োজন অনুযায়ী আলাদা সাব-কমিটি করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত রয়েছে বলে ইসি সূত্র জানিয়েছে।

আইন অনুযায়ী, প্রতিবছর এই কার্যক্রম চলার কথা থাকলেও ২০১০ ও ২০১১ সালে ভোটার হালনাগাদ বন্ধ ছিল।

শেয়ার