নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও বোমা হামলা ॥ কাশিমপুর ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৩৫ জনের জামিন না মঞ্জুর

jessore karagar
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও বোমা হামলা মামলায় কাশিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেনসহ ৩৫ জনের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামিরা হলো, নূরপুর গ্রামের ইসলাম মেম্বর, তুহিন, ডাকাতিয়া গ্রামের রবিউল, মধূ কাশেম, শেরেকুল, নজরুল, কনেজপুর গ্রামের শাজাহান, রেজাউল ইসলাম, সিদ্দিক, আতিয়ার, কাশিমপুর গ্রামের তাইজেল মেম্বর, একরাম, এনায়েতপুর গ্রামের ইকবাল, শফিয়ার রহমান, আনিচুর, শালতা গ্রামের আতিয়ার, মালেক, দাউদ, ওলিমুদ্দিন, বাবু খা, কেফায়েতনগরের শামসুর রহমান, ওসমানপুরের হান্নান, ডহেরপাড়ার হাসেম আলী, মুছা বিশ্বাস, ইউছুফ বিশ্বাস, নওদা গ্রামের নজরুল, রাজ্জাক, আবুল খায়ের, শ্যামনগরের ইদ্রিস, বা”চু, কাশেম, কটা, দৌলতদিহি গ্রামের মোজাফ্ফর ও মন্টু।
সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার গত ১৬ মার্চ রাতে ডাকাতিয়া গ্রামের মধ্য পাড়ার নির্বাচনী অফিসে প্রচারনার উদ্দেশ্যে যান। রাত ৯টার দিকে চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেনের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী নির্বাচনী অফিসে ভাংচুর করে। এ সময় মোটরসাইকেল প্রতীকের লোকজন বাধা দিলে আসামিরা বেশ কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ১৮ মার্চ ডাকাতিয়া গ্রামের লাল্টু মৃধা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেনসহ ৫৩ জনের নামে মামলা করেন। এ মামলায় অজ্ঞাতনামা আরো ২০/২৫জনকে আসামি করা হয়। রোববার তারা আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করে। বিচারক জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

শেয়ার