রেড অ্যালার্টের পেছনে বিএনপির হামলার নির্দেশ

Press cliub
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাংগঠনিক রেড অ্যালার্টের পেছনে পেট্রোল বোমা, সন্ত্রাসী হামলার গোপন নির্দেশ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির উদ্যোগে ঢাকা মহানগরের কমিটি পরিচিতি উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক মওলানা ইসমাইল হোসাইনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বৃহস্পতিবার সমাবেশে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যে সাংগঠনিক রেড এলার্টের ঘোষণা দিয়েছেন, এর পেছনে বিএনপির সন্ত্রাসীদের পেট্রোল বোমা, সন্ত্রাসীমূলক হামলার গোপন নির্দেশ রয়েছে। দেশকে অস্থিতিশিল করার জন্য তারা ষড়যন্ত্র করছে। তাদের এই অপচেষ্টার দাঁত ভাঙা জবাব দিতে হবে।

তিনি খালেদা জিয়াকে এজিদের নেত্রী বলে আখ্যা দিয়ে বলেন, গতকয়েক দিন আগে ছাত্রলীগের দু’জন নেতাকে হাত ও পায়ের শুধু রগ কর্তন নয়, পায়ের গোড়ালি থেকে পা বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। কারবালা প্রান্তরে ইমাম হোসেনকে যারা হত্যা করেছিল তারা নারায়ে তাকবির স্লোগান দিয়েছিল। আজ যারা ছাত্রলীগের নেতাদের আক্রমণ করেছে তারাও একই স্লোগান দিয়েছে। কিন্তু দু’পক্ষ এক নয়। যারা ইসলামের নামে মানুষের ওপর নৃসংশ আক্রমণ করছে তারা এজিদের অনুসারি। আর এই এজিদের নেত্রী হলো খালেদা জিয়া।

এসময় তিনি এজিদের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করার জন্য আহ্বান জানান।

নারায়ণঞ্জের ঘটনার বিষয়ে তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে যারা গুম ও হত্যার শিকার হয়েছে তারা সবাই আওয়ামী লীগের কর্মী। এ থেকেই অনুমেয় করা যায় যে করা ওই ঘটনা ঘটিয়েছে। এ থেকে পরিস্কার যে একটি পক্ষ সরকার ও দেশকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্র করছে।

এসময় তিনি মসজিদে ইসলামের সঠিক প্রচারের আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্য বক্তারা বলেন, ইসলামের কাজ হলো মানুষের মাঝে মিশে গিয়ে মানুষকে সেবা করা। মানুষদের আমরা সঠিকভাবে সেবা করতে পারি তাহলেই আমাদের সংগঠনের কার্যক্রম সফল হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- মাজহারুল ইসলাম খতীব, শাহাদত হোসেন প্রমুখ।

শেয়ার