নূর হোসেনের বাড়িতে রক্তমাখা মাইক্রোবাস, মোবাইল ফোন, আটক ১২

Nur hossen
সমাজের কথা ডেস্ক॥
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের(নাসিক) প্যানেল মেয়র ও ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলামসহ ৫ জন অপহরণের মামলার প্রধান আসামি আরেক কাউন্সিলর নূর হোসেনের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। এসময় রক্তমাখা একটি মাইক্রোবাস(ঢাকা মেট্রো-চ-১৫-০৫১০)সহ আইনজীবী চন্দন সরকারের মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। আটক করা হয়েছে ১২জনকে।

শনিবার বিকেল ৩টার দিকে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া(হেড কোয়াটার) এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম উদ্ধারের বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপরোক্ত তথ্যসহ ২ জন আটকের কথা জানিয়েছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক।

ওই সময় তিনি বলেন, একটি শার্ট উদ্ধার করা হয়েছে যার মধ্যে অনেক দাগ রয়েছে। সেটা আসলে রক্তের দাগ কি না পরীক্ষা করে দেখা হবে। এছাড়াও নূর হোসেনের পাসপোর্ট খতিয়ে দেখা হবে।

নারায়ণগঞ্জের সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য তাদের কিছু সময় দেওয়ার জন্য আহবান জানান তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল মোড় টেকপাড়া এলাকায় অবস্থিত নূর হোসেনের বাড়ির চারপাশ সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ঘেরাও করে রাখে পুলিশ। পরে বেলা ১১টায় নূর হোসেনের বাড়িতে তল্লাশি শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা। অভিযান চলাকালে গণমাধ্যমের কোন কর্মীকে বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। পরে ২টার দিকে গণমাধ্যমকর্মীদের ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়।

বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে এ প্রতিবেদন লেখার সময় তল্লাশি অভিযান চলছিল।

শেয়ার