ইজিবাইক চালক লিটন হত্যা মামলায় ৬ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট

mamla
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে ইজিবাইক চালক লিটন হত্যা মামলায় ৬ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। গতকাল রেলওয়ে খুলনা থানার এসআই খন্দকার আব্দুল হামিদ যশোর আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন। অভিযুক্তরা হলো, বেজপাড়া সাদেক দারোগার মোড় এলাকার জুম্মান আলীর ছেলে ইজাজ আহম্মেদ টিটন, শংকরপুরের তোফাজ্জেল শেখের ছেলে রাজিব শেখ, আয়ুব সরদারের ছেলে সুমন ওরফে গুলি সুমন, নাজির শংকরপুরের আবু তালেব সরদারের ছেলে ওয়াস কুরুনি লাভলু, কুরবান আলীর ছেলে সাফায়েত ও বকচর হুশতলার আব্দুল আজিজের ছেলে খোকন।
জানাগেছে, যশোর শহরের শংকরপুর এলাকার লিটন ইজিবাইক ভাড়া চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো। কিস্তিতে একটি ইজিবাইক কেনার উদ্দেশ্যে লিটন তার শাশুড়ির কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ধার নেয়। ২০১৩ সালের ১ জুলাই বিকেলে লিটন ওই টাকা নিয়ে একটি ইজিবাই কেনার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। লিটনের কাছে টাকা বিষয়টি জানতে পারে ইজিবাইক চালক এজাজ। এজাজ তার আরো কয়েকজন সহযোগীকে জানিয়ে ষড়যন্ত্র মূলকভাবে লিটনের ইজিবাইক ভাড়া নিয়ে শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরাফেরা করে। রাতে শংকরপুর হ্যাচারী গেটের পাশে লিটনের ইজিবাইক রেখে আসামিরা একটি পুকুর পাড়ে যায়। সেখানে লিটনকে পর্যাপ্ত পরিমানে মদ পান করিয়ে তার কাছে থাকা ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্ট করে আসামিরা। এক পর্যায়ে লিটনকে গলা কেটে হত্যার পর টাকা ও ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। পরদিন সকালে হ্যাচারী গেট থেকে রেলওয়ে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে রেলওয়ে পুলিশ যশোর ক্যাম্পের এসআই সেকেন্দার আলী অজ্ঞাতনামা আসামি দিয়ে হত্যা মামলা করেন। এ মামলা তদন্ত শেষে হত্যার সাথে জড়িত থাকায় ওই ৬ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয়া হয়েছে। তবে চার্জশিটে গুলি সুমন, ওয়াস কুরুনি ও সাফায়েতকে পলাতক দেখানো হয়েছে।

শেয়ার