ইরাকে আত্মঘাতীসহ পৃথক হামলায় নিহত ৬০

iraq
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ইরাকে আত্মঘাতী বোমা হামলাসহ পৃথক বিস্ফোরণে অন্তত ৬০ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে সোমবার জাতীয় নির্বাচনের প্রক্কালে একটি রাজনৈতিক দল, পুলিশ ও সেনাদলের র‌্যালিতে আত্মঘাতি বোমা হামলায় ৫০ জন নিহত হয়। এ ছাড়া এ ঘটনায় ৩০ জন আহত হয়েছেন। ইরাকের রাজধানী বাগদাদ থেকে ১৪০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর খানাকিনে কুর্দিশদের জমায়েতে আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়।
কুর্দিশ সম্প্রদায়ভুক্ত ইরাকি প্রেসিডেন্ট জালাল তালাবানিকে তখন টেলিভিশনে দেখানো হচ্ছিল। তিনি বর্তমানে জার্মানিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সেখান থেকেই তিনি ভোট দিয়েছেন।
ঘটনার বিষয়ে এক পুলিশ কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমকে জানান, কুর্দিদের রাজনৈতিক দল ইউনিয়ন অব কুর্দিস্তানের সদর দফতরের কাছে জমায়েতের মধ্যে আত্মঘাতী বোমা হামলা চালান। এতে ৫০ জন নিহত হয় ও তাকেও মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।
পুলিশ কর্মকর্তা জানান, সাধারণত সুন্নি মুসলিম জঙ্গিরা পুলিশ কিংবা সেনাবাহিনীর পোশাক পরে আত্মঘাতী হামলা চালায়। বুধবার ইরাকে জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে কারফিউ জারি করা হয়েছে। এদিকে, ইরাকের রাজধানী বাগদাদের উত্তর-পশ্চিমের শহর সাদিয়াহতে জোড়া বোমা বিস্ফোরণে ১০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ জন।
ইরাকের জাতীয় নির্বাচনের পর দিন বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে (০৭০০ এগঞ) সাদিয়াহ শহরের একটি মার্কেটে বিস্ফোরণের এ ঘটনা ঘটে।
এর আগে গত সোমবার বাগদাদ থেকে ১৪০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর খানাকিনে কুর্দিশদের জমায়েতে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৫০ জন নিহত হয়। এতে করে এক দিনের ব্যবধানে দ্বিতীয় বারের মতো বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলো।
ইরাক ২০১৪ সালে সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে। ইতোমধ্যে প্রায় ৩০০০ মানুষ বিভিন্ন হামলায় নিহত হয়েছে।

শেয়ার