শরণখোলায় সাইকোল শেল্টার উদ্বোধনকালে আইডিবি প্রেসিডেন্ট ॥ সব ধরণের দুর্যোগে সহায়তা দেবে ইসলামীক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক

sharonkhola picture
শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ॥ ইসলামীক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (আইডিবি) প্রেসিডেন্ট ড. আহমাদ মুহাম্মাদ আলী বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেছেন, এদেশে সবধরণের দুর্যোগ ও দুর্গত মানুষের সহায়তায় ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের হাত সবসময় প্রসস্ত থাকবে। তিনি বলেন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ১৮০টি স্কুল কাম সাইকোন শেল্টার নির্মাণ কাজ চলছে। ইতোমধ্যে ২৪টির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বাকিগুলো চলমান অবস্থায় রয়েছে। এগুলো যাতে ধ্বংস হয়ে না যায় তারজন্য সবাইকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখার পরামর্শ দিয়ে তিনি আরও বলেন যার দানে এগুলো নির্মিত হয়েছে এবং হচ্ছে, তিনি দেখে খুশি হবেন।
রোববার দুপুরে বাগেরহাটের শরণখোলায় রায়েন্দা পাইলট হাইস্কুলের জায়গায় নির্মিত আইডিবির ফায়েল খায়ের প্রকল্পের অর্থায়নে এবং ইসলামী ব্যাংক ফউিন্ডেশনের পরিচালনায় অত্যাধুনিক স্কুল কাম সাইকোন শেল্টার ভবন উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তভ্যে তিনি একথা বলেন। এসময় তার সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন, বাংলাদেশ সরকারের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের সচিব মেজবাহ উল আলম, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের সচিব কাজী আকতার হোসেন, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব মেজবাহ উদ্দিন, ফায়েল্ খায়ের প্রকল্পের উপদেষ্টা ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী ও প্রকল্পের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সচিব আনোয়ার হোসেনসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরের উচ্চ পদস্ত কর্মকর্তা। আইডিবির প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি হেলিকপ্টারযোগে দুপুর পৌনে ১টায় রায়েন্দা পাইলট হাইস্কুলে অবতরণ করেন। প্রথমে তিনি সাইকোন শেল্টারের নাম ফলক উন্মোচন করেন। পরে ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের ফায়েল খায়ের প্রকল্পের উপকারভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এসময় পাঁচজন নারীকে বিনা সুদে ৩০ হাজার টাকার ঋণের চেক হস্তান্তর করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মু. শুকুর আলী, পুলিশ সুপার নিজামুল হক মোল্লা, শরণখোলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন আকন, ইউএনও কেএম মামুন উজ্জামান, ভাইস চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান পারভেজ, সাইথখালী ইউপির চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন, রায়েন্দা ইউপির চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন উপস্থিত ছিলেন। পরে ড. আহমাদ মুহাম্মাদ আলী গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আব্দুল মোনেম লিমিটেড উপকূলীয় এলাকায় ১৮০টি স্কুল কাম সাইকোন শেল্টার নির্মাণের কাজ করছে। এরমধ্যে শরণখোলা উপজেলার রায়েন্দা পাইলট হাইস্কুল, ধানসাগর-নলবুনিয়া আলীম মাদরাসা ও সোনাতলা দাখিল মাদরাসায় তিনটিসহ মংলা, দাকোপ, শ্যামনগর ও কয়রা এলাকায় ২৪টির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। শরণখোলার তিনটিতে ব্যয় হয়েছে ১০ কোটি ২২ লাখ টাকা। রায়েন্দা পাইলট হাইস্কুলের ৪২৬ বর্গ মিটার জমির ওপর নির্মিত তিন তলাবিশিষ্ট এ শেল্টারে বিদ্যুৎ সংযোগ. সোলার সিষ্টেম, সুপেয় পানির ব্যবস্থা রয়েছে। ৬টি কাস রুম রয়েছে, যেখানে শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পাঠদান করা হবে। দুর্যোগকালীন এ শেল্টারে ২ হাজার মানুষ ও ৫০০ গবাধি পশু আশ্রয় নিতে পারবে। অন্য শেল্টারগুলোতেও একই সুযোগ সুবিধা রয়েছে। আইডিবির প্রেসিডেন্ট শরণখোলায় আসার আগে সাতক্ষীরা জেলার কয়রা উপজেলায়ও ফায়েল খায়ের প্রকল্পের সাইকোন শেল্টার উদ্বোধন করেন। তিনি দুপুর আড়াইটায় শরণখোলা ত্যাগ করেন।

শেয়ার