বৃষ্টিতে আপাত স্বস্তি

Rain
সমাজের কথা ডেস্ক॥ টানা তাপদাহের পর হালকা বৃষ্টি হয়েছে রাজধানীতে, যা নগরবাসীর জীবনে আপাত স্বস্তি এনেছে।

কয়েকদিনের রেকর্ডভাঙা তাপমাত্রা এবং ভ্যাপসা গরমের পর শুক্রবার ঝড়ো হাওয়ায় আভাস মিললেও কাঙ্ক্ষিত বৃষ্টির দেখা মেলেনি।

তার ২৪ ঘণ্টার মাথায় শনিবার সন্ধ্যায় হালকা বৃষ্টিতে ভেজে রাজধানী। গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির সঙ্গে ছিল শীতল হাওয়াও, যদিও তা স্থায়ী হয়নি বেশিক্ষণ।

রাজধানীর বাইরে সিলেটেও নেমেছিল বৃষ্টি। ঘণ্টাখানেক স্থায়ী বৃষ্টির সঙ্গে ছিল বজ্র ও দমকা হাওয়াও।

নগরীর লামাবাজারের বাসিন্দা আবুল কালাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “টানা কয়েকদিনের দুর্বিষহ গরমের পর শান্তি পেলাম।”

শুক্রবার রাজধানীতে না হলেও মুন্সীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ময়মনসিংহ ও কুমিল্লায় বৃষ্টি হয়েছে। তবে এই দুদিনে উত্তরাঞ্চলের কোথাও বৃষ্টি হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

এই বৃষ্টির মধ্যদিয়ে তাপমাত্রা ধীরে ধীরে কমবে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আভাস।

গত বৃহস্পতিবার ঢাকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে উঠেছিল, যা ছিল পাঁচ দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ।

শনিবারের পর রোববারও ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেটের বিভিন্ন স্থানে অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা ঝড়ো বৃষ্টির পূর্বাভাসও দিয়েছে অধিদপ্তর।
আবহাওয়াবিদরা জানান, এক সপ্তাহ ধরে তাপদাহ ও বাতাসে আর্দ্রতা কম থাকায় অতিষ্ঠ হয়ে উঠে জনজীবন। এসময় আর্দ্রতা ছিল ১৬ থেকে ২৮ শতাংশ।

শুক্রবার থেকে আর্দ্রতা বেড়ে শনিবার ৮৫ শতাংশ হয়। এতে ভ্যাপসা গরম অনুভূত হয়।

শনিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায় ৪১ সেলসিয়াস রেকর্ড হয়েছে। এদিন ঢাকায় তাপমাত্রা ছিল ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শেয়ার