বজপাড়ায় আওয়ামী লীগের যোগদান ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ॥ বিএনপি রাজাকারদের দ্বারা প্রভাবিত হওয়ায় তরুণ প্রজন্ম আ.লীগের পতাকাতলে আসছে——–শাহীন চাকলাদার

shahin vhi
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ গড়তে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ গণতান্ত্রিক উপায়ে পুনরায় ক্ষমতায় এসেছে। দেশের তরুণ প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের চেতানায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে অকুন্ঠ সমর্থন দিচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে রাজাকারদের দ্বারা প্রভাবিত দল বিএনপি ছেড়ে অনেক তরুণ এখন আওয়ামী লীগের পতাকাতলে এসে দাঁড়াচ্ছে। গতকাল রাতে শহরের বেজপাড়া তালতলা এলাকা থেকে বিএনপিসহ বিভিন্ন দল থেকে ৩শতাধিক নেতাকর্মী আওয়ামী লীগে যোগদান ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যদানকালে তিনি একথা বলেন। ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে সভায় শাহীন চাকলাদার বলেন, আওয়ামী লীগ গণমানুষের দল। এদলের নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছে। যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ স্বাধীন হয়েছিল সেটা পূরণ হতে চলেছে। বিদ্যুতের আলোয় ঝলমলে দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে ডিজিটালাইজ করেছেন। এজন্য সকলের ঐক্যবদ্ধ হয়ে আওয়ামী লীগকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। যেন ওই যুদ্ধাপরাধীদের ‘সহযোগী’ সংগঠন বিএনপি আর কোন দিন মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে। আালোচনা সভা শেষে সাবেক পৌর কাউন্সিলর ও অনিবার্ণ কাবের সভাপতি আফজালুল করিম রানুএবংবঙ্গবন্ধু সামৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডা, এ্ট এস এম আব্দুর রবের নেতৃত্বে বিভিন্ন দল থেকে ৩ শতাধিক নেতাকর্মী আওয়ামী লীগের যোগদান করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক খয়রাত হোসেন, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল খালেক, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক অ্যাড, আসাদুজ্জামান আসাদ, দপ্তর সম্পাদক মীর জহুরুল ইসলাম, শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক আসিফ-উদ-দ্দৌলা সরদার অলোক, সদস্য রেজাউল ইসলাম, যুবমহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক মহিলা কাউন্সিলর শেখ রোকেয়া পারভীন ডলি, শ্রমিক নেতা আজিজুল আলম মিন্টু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম জুয়েল, সাবেক পৌর কমিশনার সন্তোষ দত্ত,স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আব্দুল মান্নান এবং ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ।

শেয়ার