হাটবিলা থেকে ৫ লাখ টাকার সরকারি গাছ চুরি ৪ মাস পর মামলা দায়ের

gas churi
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর-খুলনা মহাসড়কের হাটবিলা থেকে ৫ লাখ টাকার সরকারি গাছ কাটার চার মাস পরে থানায় মামলা হয়েছে। বুধবার রাতে যশোর জেলা পরিষদের কর্মচারী ও সার্ভেয়ার আশরাফ হোসেন ১০ জনকে আসামি দিয়ে এ মামলা করেন। আসামিরা হলো, সদর উপজেলার শাঁখারিগাতি গ্রামের মৃত সরোয়ার হোসেনের ছেলে জিল্লুর রহমান, করিম বক্সের ছেলে আব্দুল্লাহ হাটবিলা গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে খন্দকার রেজাউল ইসলাম, দ্বীন ইসলাম গাজীর ছেলে আক্কাস আলী, আবুল কাশেমের ছেলে লাল্টু, আবু হোসেনের ছেলে আশরাফ হোসেন, সরোয়ার হোসেনের ছেলে আশরাফ হোসেন, একই এলাকার ওমর আলীর জামাই নেছার আলী, রূপদিয়া এলাকার ফজল করিমের ছেলে রফি উদ্দিন এবং মহিউদ্দিনের ছেলে জুয়েল রানা।
মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর জামায়াত-শিবিরের অবরোধ চলাকালে ওই দিন ভোর ৪ টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত যশোর-খুলনা মহাসড়কের হাটবিলা নামক স্থানে ৭০/৮০ জন ব্যক্তি নৈরাজ্য সৃষ্টি করে। তারা জেলা পরিষদের মালিকানাধীন ২০০/৩০০ টি গাছ কেটে নিয়ে যায়। সে গুলো হলো, মেহগুনি, রেইনট্রি, বাবলা, ইপিলইপিল, আম, তালসহ বিভিন্ন প্রকার গাছ ছিল। তারা মূল্যবান মেহগুনি গাছ বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করে দেয়। আসামি জিল্লুর রহমানের বাড়ির সামনে থেকে একটি বড় মেহগুনি গাছ উদ্ধার করা হয়। আসামিদের নাম ঠিকানা ও গাছের সন্ধান করতে গিয়ে এতো দিন সময় লেগে যায়। এ কারণে মামলা করতে দেরি হয় বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

শেয়ার