সুন্দরবনে দস্যুদের হামলা ॥ ৩ মৌয়াল গুলিবিদ্ধ, অপহৃত ২

mowal
শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি॥ পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কটকা অভয়ারণ্য এলাকায় মধু সংগ্রহ করতে গিয়ে বনদস্যুদের গুলিতে তিন মৌয়াল আহত হয়েছেন। দস্যুরা ৫মন মধুসহ অপহরণ করেছে অপর দুই মৌয়ালকে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে। গুলিবিদ্ধ তিন জনকে শরণখোলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পরে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
গুলিবিদ্ধ তিন জেলে হলেন, উপজেলার চালিতাবুনিয়া গ্রামের মানিক তালুকদারের ছেলে মাহবুব তালুকদার (৩৫), বগী গ্রামের কাঞ্চন হাওলাদারের ছেলে লিটন হাওলাদার (২৪) এবং একই গ্রামের মালেক হাওলাদারের ছেলে সোহাগ হাওলাদার (৩২)। অপহৃতরা হলেন, চালিতাবুনিয়া গ্রামের নেছার তালুকদারের ছেলে রাজ্জাক তালুকদার (৪৫) ও মজিদ পেয়াদার ছেলে রশিদ পেয়াদা (৫০)।
আহত জেলেদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে মৌয়ালরা কটকা ফরেস্ট অফিসে নৌকা নিয়ে খাবার পানি আনতে যাচ্ছিলেন। এসময় অজ্ঞাত পরিচয়ের ৯/১০ জন সশস্ত্র দস্যু মৌয়ালদের ওপর অতর্কিতে গুলিবর্ষণ শুরু করে। এতে তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়ে নদীতে পড়ে যান। পরে দস্যুরা ওই নৌকা থেকে ৬০ হাজার টাকা মূল্যের ৫মন মধুসহ অপর দুইজনকে মুক্তিপণের দাবিতে অপরণ করে নিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ তিন জন সাঁতরিয়ে ফরেস্ট অফিসে গিয়ে উঠলে বনরক্ষীরা তাদেরকে বৃহস্পতিবার দুপুরে শরণখোলা হাসপাতালে নিয়ে আসেন।
শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বনসংরক্ষক মো. কামাল আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গুলিবিদ্ধ তিন জনকে বনবিভাগের সহায়তায় হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে বনদস্যুর পরিচয় পাওয়া যায়নি। বনবিভাগ অপহৃতদের উদ্ধারে তৎপর রয়েছে।

শেয়ার