ভালুকঘর বহুমুখি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ॥ অভিভাবক সদস্য থেকে খালেক সানার পদত্যাগ

JessoreBoard
কেশবপুর উপজেলার ভালুকঘর বহুমুখি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সদ্য গঠিত এডহক কমিটর একমাত্র অভিভাবক সদস্য আব্দুল খালেক সানা পদত্যাগ করেছেন। গতকাল তিনি যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে উপ বিদ্যালয় পরিদর্শকের কাছে পদত্যাগ পত্র জমা দেন। এসময় সেখানে বিদ্যালয় পরিদর্শক উপস্থিত ছিলেন।
বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর পাঠানো পদত্যাগ পত্রে আব্দুল খালেক সানা উল্লেখ করেছেন অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল হামিদ একজন দুর্নীতিবাজ। তার বিরুদ্ধে স্কুলের স্বীকৃতি নবায়ন না করা এবং জালজালিয়াতিসহ বেশ কিছুগুরুতর অভিযোগ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে তদন্তনাধীন রয়েছে। তার কারণে গত ৫ মাস শিক্ষরা বেতন পাননি। নতুন এডহক কমিটি গঠনের পর আমরা আশা করেছিলাম নবাগত সভাপতি বিদ্যালয়ে বিদ্দমান সমস্যা নিরসনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন। কিন্তু তিনি দায়িত্ব গ্রহণের পর কোন সভা আহবান না করে বিতর্কিত প্রধান শিক্ষকের দাখিলকৃত বিল স্বাক্ষরসহ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধ্যান্ত দিয়েছেন। নিয়মানুযায়ী দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথম সভা ডেকে পরবর্তী কার্যক্রম এবং সিদ্ধ্যান্ত গ্রহণ করার কথা। কিন্তু তিনি সেটি না করায় তাকে অবমূল্যায়ন করা হয়েছে বলে মনে করেন আব্দুল খালেক সানা। তিনি বলেন নতুন কমিটির যাত্রার শুরুতে সদস্যদের অবমূল্যায়ন এবং দুর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষকের সাথে কাজ করা সম্ভব না হওয়ায় অভিভাবক সদস্য পদ খেকে তিনি পদত্যাগ করেছেন। গত বৃহস্পতিবার নতুন এডহক কমিটি অনুমোদন দেয় যশোর শিক্ষা বোর্ড। ৪ সদস্যের এই কমিটির সভাপতি মনোনয়ন দেয়া হয়েছে যশোরের নিজারাত ডেপুটি কালেক্টরকে। যশোর বোর্ডে এই প্রথম ক্যাডার সার্ভিসের একজন জুনিয়র অফিসারকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সভাপতি হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছে। সাধারণত ডিসি এডিসি এবং ইউএনও বা সমমর্যাদার কাউকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠনে সভাপতি করা হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার