কেশবপুরে দু”গ্রুপের মধ্যে আবারও সংঘর্ষ, আহত-৩॥ টান টান উত্তেজনা

shonghorso
নিজস্ব প্রতিবেদক, কেশবপুর॥ কেশবপুরের পাঁজিয়া ইউনিয়নে মঙ্গলবার বিকেলে আবারও যুবলীগের প্রতিপরে হামলায় সাবেক যুবলীগের ইউনিয়ন সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম , সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন ও ভাড়া চালিত মটরসাইকেল চালক মতিয়ার রহমান সরদার গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদেরকে কেশবপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পাঁজিয়া বাজারসহ হদ গ্রাম এলাকায় যুবলীগের দু” গ্র“পের ভেতর টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় ওই দু পরে মধ্যে রক্তয়ী সংঘর্ষ ঘটতে পারে । খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। রোববার রাতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু গ্র“পের সংঘর্ষে ৪জন সহ মোট ৬ জন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
জানা গেছে, রাতে পাঁজিয়া বাজারে উপজেলা যুবলীগের সদস্য আবু সায়েদ লাভলুর উপর ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন হামলা চালিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় লাভলু পরে সমর্থকরা বাজারে সংগঠিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে তাদের ঠেকাতে গিয়ে পাঁজিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম মুকুল(৪৮) ,সাজ্জাদ হোসেনের পিতা ইমান গাজী(৫৫), রাজ্জাক গাজী( ৩৮) আহত হন। গুৃরুতর আহত লাভলু সরদারকে কেশবপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যরা স্থানীয় চিকিৎসকের কাছ থেকে চিকিৎসা নিয়েছে। সাজ্জাদ হোসেনের পিতা ইমান গাজী(৫৫), তার বড়ভাই রাজ্জাক গাজী( ৪৫)কে মারপিট করে। ওই রাতে তারা সাজ্জাদ হেসেনের পরে ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের হদ গ্রামস্থ বাড়িতে চড়াও হয়ে ভাংচুর , লুটপাট চালায়। লাভলু সরদারকে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অন্যরা স্থানীয় চিকিৎসকের নিকট থেকে চিকিৎসা নেয়। এ ঘটনায় দু পরে ৬ নেতা কর্মী আহত হয়েছে। পুলিশ জানায় মারপিট এর ঘটনায় দু পইে থানায় অভিযোগ করেছে।

শেয়ার