চৌগাছার ফজলুর রহমান হত্যা মামলা ॥ যশোরে জামিন না মঞ্জুর॥ ১২ আসামি কারাগারে

jessore karagar
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ চৌগাছার ফজলুর রহমান হত্যা মামলার ১২ আসামির জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। সোমবার যশোর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট প্রনব কুমার হুই মামলার শুনানী শেষে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আসামিরা হলেন উপজেলার দেবীপুর গ্রামের সামাদুল হক, শুকুর আলী, শাহাজান, আরাজি সুলতানপুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম, মাঠ চাকলা গ্রামের আব্দুল কাদের, সাইফুর ইসলাম, জামসের আলী, মাহফুজুল হক, জাহিদুল ইসলাম, মন্টু, আসাদুল ইসলাম ও পাতিবিলা গ্রামের মনোয়ার হোসেন।
মামলা সূত্রে জানাগেছে, আসামিদের সাথে দেবীপুর গ্রামের ফজলুর রহমানের ইটভাটা, জমিজমা ও রাজনৈতিক বেরোধ ছিল। গত ২৭ ফেব্রুয়ারি চৌগাছা উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে দেবীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে বাড়ি থেকে বের হন ফজলুর রহমান। আসামিরা আগে থেকে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে রাস্তায় ওৎ পেতে ছিল। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তাকে রাস্তার ওপর ফেলে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে এবং গুলি করে মৃত্যু নিশ্চিত মনে করে বীরদর্পে স্থান ছেড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে যশোর এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৮ ফেব্রুয়ারি ভোর সাড়ে ৪টার দিকে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে সোহানুর রহমান সোহাগ বাদী হয়ে ২ মার্চ চৌগাছা থানায় ৫১ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ১৪/১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। গত ৯ এবং ১২ মার্চ এ আসামিরা উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জন্য অন্তবর্তী কালিন জামিনে আসে। সোমবার তারা ওই ১২ জন আসামি যশোর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করে। বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

শেয়ার