খাজুরায় একটি অসাধু চক্র অবৈধভাবে হাট বসাচ্ছে॥ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ইজারাদার

hat
বাঘারপাড়া প্রতিনিধি॥ বাঘারপাড়া উপজেলাসহ আশপাশ অঞ্চলের সবচেয়ে বড় খাজুরার পাইকারী বাজারকে ঘিরে শুরু হয়েছে কিছু অসাধু লোকের জমজমাট ব্যবসা। যশোর সদরের সীমান্ত উপজেলা খাজুরার হাট। প্রতি রোববার ও বৃহস্পতিবার খাজুরা এলাকা, যশোর সদরের আংশিক ও কালীগঞ্জের কিছু অঞ্চলের বড় হাট হিসাবে এই বাজার বিবেচিত হয়। পার্শ¦বর্তী বারিনগর (ভাটার আমতলা) এ অঞ্চলের সর্ববৃহত কাঁচামালের আড়ৎ। এই হাটকে কেন্দ্র করে সরকারি কোষাগারে জমা হয় লক্ষ লক্ষ টাকা। বাঘারপাড়া নির্বাহী অফিস সূত্রে জানা যায় ১৪২১ সনের ইজারা বন্দোবস্তের জন্য খাজুরা ও মথুরাপুরের জনৈক নিয়ামত আলী ও ভাটার আমতলার হাট একই গ্রামের ছব্দুল বিশ্বাস ইজারাদার নিযুক্ত হন। কিন্তু সরকারি টোল ফাঁকি দিয়ে অসাধু ব্যবসায়ীরা হাটের দিন ব্যতিত অন্যান্য দিনে খাজুরা তেল পাম্প এলাকায় ও সিমাখালী এলাকার দক্ষিণে অবস্থিত তেল পাম্পের ধারে অবৈধ ভাবে কাঁচা মাল ধান কলাইসহ অন্যান্য মালামাল বিক্রয়ের হাট বসাচ্ছে। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে প্রকৃত ইজারাদাররা। এ অবস্থা চলতে থাকলে আগামী দিনে হাট ক্রয়ের ইজারাদার পাওয়া যাবে না। এ ব্যাপারে প্রকৃত ইজারাদাররা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে অভিযোগ দাখিল করেছেন। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়ারুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান অবৈধ ভাবে হাট বসালে সরকারি বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার