অলৌকিক খেজুরগাছ ! ॥এক নজর দেখার আশায় ছুটছেন হাজার হাজার নর-নারী

khejur gas
এস এম আহম্মাদ উল্যাহ বাচ্চু, কালিগঞ্জ ॥
পুকুর পাড়ে জন্মানো একটি খেজুর গাছ দিন-রাতে একটি নির্দিষ্ট সময় মেনে উচু-নিচু হচ্ছে বলে দাবি এলাকাবাসীর। খেজুর গাছের এই অলৌকিক ঘটনা স্বচক্ষে দেখার জন্য ভিড় করছে হাজার হাজার মানুষ। আবার রোগ মুক্তির আশায় অনেক নারী-পুরুষ ভক্তি সহকারে পান করছেন ওই পুকুরের পানি। সরেজমিন কালিগঞ্জের নলতা ইউনিয়নের কাশিবাটি ফুটবল মাঠ সংলগ্ন শেখ পাড়া এলাকায় নজরুল ইসলামের মালিকানাধীন পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখা গেছে এই বিচিত্র ঘটনাটি।
পুকুর মালিকের সহোদর ভাই শেখ খায়রুল ইসলাম জানান, তাদের ৫ শতাংশ জায়গায় অবস্থিত পুকুরের পাড়ে জন্মানো খেজুর গাছটি অনেকদিন পূর্ব থেকে হেলানো অবস্থায় বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু প্রায় ১৫ দিন যাবত ওই খেজুর গাছটি মাঝ বরাবর থেকে উপরের অংশ পানিতে তালিয়ে যাচ্ছে। নির্দিষ্ট সময়ের ব্যবধানে সেটি আবার উচু হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসছে বলে দাবি তার। এই উত্থান-পতনের পরিমাণ কমপক্ষে ৫ থেকে ৬ ফুট। পুকুরের মালিকসহ কয়েকজন এলাকাবাসী জানান, সকাল ৮ টার পর থেকে খেজুর গাছের মাঝ থেকে উপরের অংশ (পাতাসহ) পানিতে ডুবে যায়। এ অবস্থা থাকে বিকেল পর্যন্ত। আবার পড়ন্ত বিকেল থেকে খেজুর গাছটি আস্তে আস্তে পানির উপরে উঠে যায়। রাত ১০ টা নাগাদ খেজুর গাছের উপরের অংশ পানি থেকে ৫-৬ ফুট উচুতে উঠে। এ ভাবেই থাকে সকাল পর্যন্ত। তবে উপরের অংশ উত্থান-পতন হলেও এর গোড়ার মাটি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছে। এ খবর ব্যাপক ভাবে জানাজানি হলে প্রায় ১ সপ্তাহ যাবত দূর-দূরান্ত থেকে বিভিন্ন বয়সের হাজার হাজার নারী-পুরুষ ঘটনাটি এক নজর দেখার জন্য ওই স্থানে ভিড় করছে। অনেক নারী, পুরুষ ও শিশু-কিশোর রোগ মুক্তির আশায় পুকুরের পানি তুলে পুকুর পাড়ে বসেই পান করছেন। আবার আগত অনেক ব্যক্তিকে বোতলে বা বিভিন্ন পাত্রে পানি নিয়ে যেতে দেখা গেছে।
লোকজনের সমাগম উপলক্ষে পুকুর পাড়ে বসেছে কয়েকটি খাদ্যদ্রবের দোকান।

শেয়ার