‘পাকিস্তানি পার্টি’ বিএনপি অস্তিত্বহীন, বললেন অর্থমন্ত্রী

orthomontry
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বিএনপিকে ‘পাকিস্তানি পার্টি’ আখ্যা দিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, দলটি বর্তমানে অস্তিত্বহীন। বিএনপির কবর রচিত হয়ে গেছে। একইসঙ্গে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেছেন, ‘কোথাকার কোন পাগল-ছাগল, কোন অশিক্ষিতি লোক কী বললো, এসব নিয়ে কথা বলবেন না। ডোন্ট টক অ্যাবাউট ইট।’

মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে স্থানীয় সময় শনিবার নিউইয়র্কে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেব উপস্থিত থেকে এসব কথা বলেন তিনি।

আগামী ২০১৮ সালের মধ্যেই অর্থাৎ এ সরকারের আমলেই পদ্মাসেতুর কাজ শেষ হবে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের নিজস্ব অর্থায়নেই পদ্মাসেতু হবে।

তিনি বলেন, দেশের বর্তমান বাজেট দুই লাখ ১১ হাজার কোটি টাকা। পদ্মাসেতুর জন্য ব্যয় হবে ২১-২২ হাজার কোটি টাকা। প্রতিবছর ৫-৬ হাজার কোটি টাকা করে জমা করলে চার বছরে এ টাকা যোগাড় করতে কোনো অসুবিধা হবে না।

বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ অনেক বেশি হয়ে যাওয়ায় বরং খানিকটা অসুবিধাই হচ্ছে- এমন উষ্মা প্রকাশ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, অবশ্যই এ অর্থ থেকেও পদ্মাসেতুতে বিনিয়োগ করা হবে।

তিনি জানান, বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের পরিমাণ ২০ বিলিয়ন ডলার।

মুজিবনগর দিবস উদযাপন সার্বজনীন কমিটি আয়োজিত এ আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমেদ।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণা বিতর্কের প্রতি ইঙ্গিত করে মুহিত বলেন, কেউ ঘোষণা পাঠ করেছেন, তাতেই স্বাধীনতা আসে না। নিউইয়র্কে ২৭ মার্চ বাংলাদেশ লিগ অব আমেরিকা স্বাধীনতা ঘোষণা করে জাতিসংঘ ও মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে চিঠি দিয়েছিল। সুতরাং এসব দাবি অমূলক। দীর্ঘ নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধে দেশ স্বাধীন হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর নামেই স্বাধীনতা যুদ্ধ হয়েছে, অন্য কারও ঘোষণায় নয়।

বিএনপির কঠোর সমালোচনা করে অর্থমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে একটি ‘পাকিস্তানি পার্টি’ আছে, সেটা হলো বিএনপি। পাকিস্তানি এ পার্টি বর্তমানে অস্তিত্বহীন। তারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলো কি করলো না তাতে কিছু আসে যায় না, নির্বাচনে এলে হয়তো কিছু ভোটও পেতো সিটও পেতো।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পর তার স্ত্রী খালেদার কখনোই এমন সময় যায়নি, তিনি কোনো না কোনো ক্ষমতায় রাষ্ট্রীয় কর্তৃত্বে ছিলেন। এই প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রে তার কোনো ভূমিকা নেই।

তিনি বলেন, আমার ধারণা এই ‘পাকিস্তানি পার্টি’র কবর রচিত হয়ে গেছে। খামোখা এ নিয়ে কোনো কথা বলবেন না। ‘শি (খালেদা) ইজ নাথিং ইন দ্য কান্ট্রি , তার পার্টি নাথিং ইন দ্য কান্ট্রি , জাস্ট ফরগেট অ্যাবাউট ইট’।

শেয়ার