ঝিকরগাছা থানায় বসে ওসি’র সাথে খোশ গল্প করেন গাছ চুরি মামলার আসামিরা

durniti
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ ঝিকরগাছায় অর্ধলক্ষ টাকার সরকারি গাছ বিক্রির অভিযোগে গাছ চুরির সাথে জড়িতদের নামে মামলা হলেও পুলিশ অজ্ঞাত কারণে এখনও কাউকে আটক করেনি। মামলার আসামিরা থানায় গিয়ে ওসি’র সাথে বসে গল্প করছে এবং হুংকার দিচ্ছে এবার রাস্তার একটি বড় গাছ কেটে ওই টাকা দিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বদলি করব।
১১ এপ্রিল ঝিকরগাছা উপজেলা নাভারণ ইউনিয়নের কুন্দিপুর করিম আলী দাখিল মাদ্রাসার পাশ থেকে প্রায় অর্ধ লক্ষ টাকার সরকারি গাছ চুরি হয়। গাছ কাটার সংবাদ জানার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তিনি এর সত্যতা পান এবং কর্তনকৃত গাছ জব্দ করতে গেলে তাকে হুমকি দেয় গাছ চোরেরা। এ সংক্রান্ত দৈনিক সমাজের কথায় তিনটি সংবাদ প্রকাশিত হয় এবং জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী সঞ্জয় কুমার বণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। যার মামলা নং- ২২, তাং-১৩.০৪.২০১৪। এ মামলায় আসামিরা হচ্ছে, কুন্দিপুরের রজব আলীর ছেলে ফজলুর রহমান, মৃত শুকুর আলী ছেলে হাফিজুর হক ঝন্টু ও গাছ ক্রেতা শার্শা কাজীর বেড় গ্রামের মৃত নাজির হোসেনের ছেলে রাফু। মামলার পর থেকে আসামিরা এলাকায় ও থানায় প্রকাশ্যে ঘুরে ফেরা করলেও পুলিশ তাদের অজ্ঞাত করেণে ধরছে না বলে এলাকাবাসী অভিযোগ। এব্যাপারে তারা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।
উল্লেখ্য মামলার ২নং আসামি ফজলুর রহমান নাভারণ আকিজ বিডি ফ্যাক্টারির কর্মচারী হওয়ায় সে নিজেকে বড় নেতা বলে এলাকায় প্রচার করছে এবং হুংকার দিচ্ছে থানায় মামলা হলেও পুলিশ আমাকে ধরবে না। উপর মহলের নির্দেশ আছে।

শেয়ার