কালীগঞ্জে প্রেমিকজুটিকে আটক করে মুক্তিপণ দাবি॥ ৮ জনের নামে মামলা॥ আটক ৪

muktipon
নিজস্ব প্রতিবেদক, (ঝিনাইদহ) কালীগঞ্জ॥ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ২ ছেলে মেয়েকে আটক করে ২০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করায় ৮ যুবকের নামে দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে। সোমবার রাতে কালীগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ এ ঘটনায় এজাহারভুক্ত ৪ আসামিকে আটক করেছে।
জানা গেছে,ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ঘোড়শাল গ্রামের মাহতাব উদ্দীনের ছেলে নাজমূল হোসেন (১৯) তার প্রেমিকা পাশ্ববর্তী আড়মুখী গ্রামের আব্দুর রশীদ বিশ্বাসের মেয়ে তানিয়া কে নিয়ে সোমবার সকালে কালীগঞ্জে বেড়াতে আসে।
সকাল ১১ টার দিকে কালীগঞ্জের কলেজ পাড়া থেকে ৮ যুবক তাদের রিক্সা থেকে ডেকে নিয়ে আটক করে রাখে। পরে মোবাইল ফোনে ওই যুবকরা প্রেমিক নাজমূলের পরিবারের কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। কালীগঞ্জ থানা পুলিশ শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে নাজমূল ও তার প্রেমিকা তানিয়া কে উদ্ধার ও মুক্তিপণকারী যুবকদের আটক করে।
আটককৃত হচেছ, কালীগঞ্জের আনন্দবাগ গ্রামের উল্ফা মন্ডলের ছেলে রিপন মন্ডল (১৮), একই গ্রামের বাচ্চু মন্ডলের পুত্র বাপ্পি (১৮), কলেজপাড়ার বিনয়ের ছেলে সনজিৎ (১৮) ও ঝিনাইদহ সদর উপজেলার খামারাইল গ্রামের ওলিয়ার রহমানের ছেলে সজিব (১৮)।
এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি পাইকপাড়া গোরস্থান পাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে সালাম (১৮), মাস্টার পাড়ার মকলেছ হোসেনের ছেলে জয় (১৯), কলেজপাড়ার উত্তম কুমারের ছেলে সুসময় (১৯), পাইকপাড়ার ইমরান (১৯) পলাতক রয়েছে।
কালীগঞ্জ থানার এসআই নীরব হোসেন জানান, নাজমূল ও তার প্রেমিকা তানিয়াকে আটক করে তাদের পরিবারের কাছে উপরোক্ত যুবকরা ২০ হাজার টাকা দাবি করে। এ ঘটনায় নাজমূল হোসেন বাদি হয়ে ৮ যুবকের নামে কালীগঞ্জ থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ রিপন, সজিব, বাপ্পি ও সনজিৎ কে আটক করেছেন। বাকিদের আটকের জন্য পুলিশ জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

শেয়ার