খুলনায় ভুল চিকিৎসায় স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

doctor
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ভুল চিকিৎসায় খুলনার সরকারি করোনেশন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী সাদিয়া সোয়াইদা তাজিয়া (১১) মারা গেছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।
সোমবার দিবাগত রাতে মহানগরীর নার্গিস মেমোরিয়াল ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

স্কুলছাত্রী তাজিয়ার পিতা আইনজীবী এ কে এম শহীদুল হোসেন অভিযোগ করে বলেন, রোববার রাতে তার মেয়ে তাজিয়ার পেটে ব্যথা শুরু হয়। সঙ্গে সঙ্গে তিনি নার্গিস মেমোরিয়াল ক্লিনিকে মেয়েকে নিয়ে যান। প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চিকিৎসকরা তাজিয়াকে ভর্তি করে নেন এবং অপারেশন করার জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেন। ইতোমধ্যে কেবিনে থাকা অবস্থায় ক্লিনিকের নার্স রাসনা শিশু তাজিয়াকে ভুলক্রমে গ্যাস কমানোর নিয়ন্ত্রণের ইনজেকশনের স্থলে অচেতন করার ইনজেকশন পুশ করেন। কিছু সময়ের মধ্যে অচেতন হয়ে পড়ে শিশু তাজিয়া।

পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকরা সোনাডাঙ্গা এলাকার বেসরকারি হাসপাতাল গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। তখন পরিবারের পক্ষ থেকে তাজিয়াকে গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন। সেখানে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নার্গিস মেমোরিয়াল ক্লিনিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আরিফুর রহমান জানান, ক্লিনিকের নার্স রাসনার দায়িত্বে অবহেলার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে চাকরিচ্যুত এবং পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

খুলনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস জানান, নার্গিস মেমোরিয়াল ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন নার্স রাসনাকে দুইজন মহিলা পুলিশ পাহারায় রেখেছেন। শিশু তাজিয়ার লাশ সোমবার দুপুরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্ত করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার